শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংয়ে ধস নামালেন অজি স্পিনাররা , ১০ উইকেটে জয় অস্ট্রেলিয়ার

শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংয়ে ধস নামালেন অজি স্পিনাররা , ১০ উইকেটে জয় অস্ট্রেলিয়ার

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  গলে প্রথম টেস্টের শুরু থেকেই ব্যাক ফুটে ছিলেন দিমুথ করুণারত্নেরা। শেষ পর্যন্ত আর ফ্রন্ট ফুটে আসতে পারল না শ্রীলঙ্কা। স্পিন সহায়ক উইকেট তৈরি করে অস্ট্রেলিয়াকে আপ্যায়ন করেছিলেন তাঁরা। অস্ট্রেলিয়ার স্পিনারই করুণারত্নেদের ১৮টি উইকেট তুলে নিলেন। নিজেদের তৈরি প্রশ্নপত্রের উত্তর দিতে না পেরে দু’ইনিংসেই ব্যাটিং বিপর্যয় ঘটে শ্রীলঙ্কার।

প্রথম ইনিংসে আয়োজকরা তোলেন ২১২ রান। আর দ্বিতীয় ইনিংসে করুণারত্নেরা করেন মাত্র ১১৩ রান। যা এখনকার টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের নিরিখেও বড় রান নয়। দ্বিতীয় ইনিংসে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ রান এল করুণারত্নের ব্যাট থেকেই। শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক করলেন ২৩। আয়োজকদের ছয় ব্যাটার দু’অঙ্কের রানও করতে পারলেন না। শ্রীলঙ্কা ইনিংসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কার ১৪। যদিও তার থেকেও বেশি ১৬ রান যোগ হয়েছে অতিরিক্ত হিসাবে। প্রথম টেস্টের তৃতীয় দিন অবশ্য মাঠে নামতে পারলেন না ম্যাথুজ। ইংল্যান্ডের বেন ফোকসের পর শ্রীলঙ্কার অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার টেস্ট ম্যাচ চলাকালীন কোভিড আক্রান্ত হয়ে ছিটকে গেলেন। তাঁর পরিবর্তে দলে আসা ওশাদা ফার্নান্দো করলেন মাত্র ১২ রান।

শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় ইনিংস ১১৩ রানে শেষ হওয়ার পর জয়ের জন্য অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ছিল মাত্র ৫ রান। মাত্র চার বলে ১০ রান করে দলকে ১০ উইকেটে জয় এনেদিলেন ডেভিড ওয়ার্নার। তার আগে শুক্রবার সকালে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংস শেষ হয় ৩২১ রানে। দ্বিতীয় দিনের শেষে অপরাজিত থাকা অজি অধিনায়ক কামিন্স শেষ পর্যন্ত করলেন ২৬ রান। অন্য অপরাজিত ব্যাটার লায়ন অপরাজিত থাকেন ১৫ রানে। প্রথম ইনিংসের নিরিখে শ্রীলঙ্কার থেকে ১০৯ রানে এগিয়েছিল সফরকারীরা। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে দুরন্ত জয়ের সুবাদে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ওঠার দৌড়ে আরও এগিয়ে গেলেন কামিন্সরা।