ব্যর্থ ভারতের কূটনৈতিক চাল, শ্রীলঙ্কায় ভিড়ল চিনা গুপ্তচর জাহাজ

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ চিনের এই জাহাজ হাম্বানতোতা বন্দরে পৌঁছেছে

ব্যর্থ ভারতের কূটনৈতিক চাল, শ্রীলঙ্কায় ভিড়ল চিনা গুপ্তচর জাহাজ

আরোহী নিউজডেস্ক: ভারতের কূটনৈতিক চাল পুরোপুরি ব্যর্থ হল। ভারতের চাপ উপেক্ষা করেই ইয়ুয়ান ওয়াং-৫ নামের চিনা গুপ্তচর জাহাজ শ্রীলঙ্কার হাম্বানতোতা বন্দরে প্রবেশ করেছে। প্রবল অর্থনৈতিক সংকটে ধুঁকতে থাকা ভারতের প্রতিবেশী দ্বীপরাষ্ট্রের বন্দরমন্ত্রী ক্যাপ্টেন নির্মল ডি সিলভা সর্বভারতীয় এক সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ চিনের এই জাহাজ হাম্বানতোতা বন্দরে পৌঁছেছে।

চিনের ইয়ুয়ান ওয়াং-৫ নামের গুপ্তচর জাহাজটি নিয়ে ভারতের প্রথম থেকেই আপত্তি ছিল। যা শ্রীলঙ্কা প্রশাসনকে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে চাপ দিচ্ছিল নয়া দিল্লি। অপরদিকে একই আপত্তির কথা জানিয়ে দেয় মার্কিন প্রশাসন। দুই প্রবল শক্তিধর দেশ আপত্তি করায় প্রথমে চিনের জাহাজটিকে নিজেদের জলপথে প্রবেশের অনুমতি দেয়নি শ্রীলঙ্কা। তখন ভাবা হয়েছিল এটা ভারতের কূটনৈতিক জয়। কিন্তু এরপরই ১৮০ ডিগ্রি অবস্থান বদল করল শ্রীলঙ্কা। এই ব্যাপারে ভারতের তরফে এখনও কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

 এই চিনা জাহাজ নিয়ে কেন এত আপত্তি?

চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন জানিয়েছেন, ইয়ুয়ান ওয়াং-৫ নামের জাহাজকে নিজেদের বন্দরে নোঙর করার অনুমতি দিয়েছে শ্রীলঙ্কা।  ১৬ থেকে ২২ অগস্ট অবধি হাম্বানতোতা বন্দরেই থাকবে এই জাহাজ। অপরদিকে শ্রীলঙ্কার বন্দর আধিকারিকদের উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, দ্বীপরাষ্ট্রের তরফে স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সেদেশের জলসীমার মধ্যে থাকাকালীন ইয়ুয়ান ওয়াং-৫ নামের এই বিশেষ প্রযুক্তিতে নির্মিত জাহাজ কোনও ধরনের গবেষণা চালাতে পারবে না। সূত্রের খবর, যে জাহাজকে ঘিরে এত কূটনৈতিক চাপানউতোর, সেটি ইউয়ান ওয়াং সিরিজের তৃতীয় জেনারেশনের জাহাজ। জাহাজটি চিনের সেনা পিএলএ ব্যবহার করে থাকে। স্যাটেলাইট এবং মিসাইলের গতিপথ ট্র্যাক করার জন্য এই জাহাজে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি রয়েছে। এই জাহাজে রয়েছে এমন কিছু শক্তিশালী ব়্যাডার রয়েছে যা বিভিন্ন ক্ষেত্রে নজরদারিতে সাহায্য করে। ফলে ভারতের আপত্তি এই নিয়েই। কারণ ভারত মহাসাগরে ভারতের প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত গোপন কার্যপ্রণালী অনুসন্ধান করার উদ্দেশ্যেই এই গুপ্তচর জাহাজ পাঠিয়েছে চিন।