চিকিৎসায় স্টেরয়ডে লাগাম! কোভিড চিকিৎসায় নতুন নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্র

চিকিৎসায় স্টেরয়ডে লাগাম! কোভিড চিকিৎসায় নতুন নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্র

আরোহী নিউজ ডেস্ক: দেশে উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। আর সেই আক্রান্তের সংখ্যায় ইতি টানতেই কোভিড চিকিৎসায় এক গুচ্ছ বদলের কথা বলল কেন্দ্র। কেন্দ্রের তরফে জারি হল নয়া নির্দেশিকাও।

নয়া জারি করা সেই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, স্টেরয়েড থেকে শুরু করে রেমডিসিভিরের প্রয়োগ, নিয়ন্ত্রিত ব্যবহার আনতে হবে প্রত্যেকটির ক্ষেত্রেই। কোভিড চিকিৎসার সূচনা পর্ব থেকেই বহুল পরিমাণে স্টেরয়েড জাতীয় ওষুধের ব্যবহার করা হচ্ছিল। তবে, স্টেরয়েড জাতীয় ওষুধে দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়ে বলে অভিমত কেন্দ্রীয় বিশেষজ্ঞ দলের। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছে, উচ্চ মাত্রার স্টেরয়েড প্রয়োজনের তুলনায় বেশি দিন ব্যবহৃত হলে বেড়ে যায় মিউকরমাইকোসিস বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাস জাতীয় সংক্রমণের আশঙ্কা। সূত্র মারফত জানা গেছে, ২০২১-এ ভারতে মোট ৫১৭৭৫ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে। আর তাই এই নতুন নির্দেশিকা জারি করতে বাধ্য হয়েছে কেন্দ্র।

প্রসঙ্গত, চলতি মাসের গত সপ্তাহেই সাংবাদিক সম্মেলনে কোভিড চিকিৎসায় স্টেরয়েডের অতিরিক্ত ব্যবহার নিয়ে সতর্কতার বার্তা দিয়েছিলেন নীতি আয়োগের সদস্য ও কেন্দ্রীয় কোভিড টাস্ক ফোর্সের প্রধান ভি কে পাল। আর নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, মধ্যম ও মৃদু উপসর্গযুক্ত রোগীদের ক্ষেত্রে বিশেষ ভুমিকা নেই ইঞ্জেকশনের মাধ্যমে দেওয়া স্টেরয়েডের। স্টেরয়েডের পাশাপাশি রেমডিসিভির ব্যবহার নিয়েও জারি হয়েছে সতর্কতা।

সর্বোপরি, কোভিডের এই নতুন গাইডলাইন জারির পর, তা কোভিড চিকিৎসায় কতটা লাভজনক হয়, এখন সেটাই দেখার।