সীমান্তবর্তী তিন রাজ্যে বিএসএফ এর কার্যক্ষেত্র বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত    

সীমান্তবর্তী তিন রাজ্যে বিএসএফ এর কার্যক্ষেত্র বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত    

আরোহী নিউজ ডেস্ক: স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে বুধবার বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের ক্ষমতা বৃদ্ধি করা হয়েছে। বিএসএফ কর্মকর্তাদের হাতে গ্রেফতার, তল্লাশি ও বাজেয়াপ্ত করার ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ, পাঞ্জাব এবং আসাম, এই তিনটি সীমান্তবর্তী রাজ্যে বিএসএফ এর এই কার্যক্ষেত্র বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সোমবার এই বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। কেন্দ্র জানিয়েছে যে আন্তর্জাতিক সীমান্তবর্তী রাজ্যগুলোতে বিএসএফ এর ক্ষমতা প্রয়োগের ক্ষেত্রে ২০১৪ সালের জুলাই মাসে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে সংশোধন আনা হয়েছে। আসাম, পশ্চিমবঙ্গ এবং পাঞ্জাবের ভারত-পাকিস্তান এবং ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ক্ষেত্রে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে ভারতীয় সীমানার অভ্যন্তরে ৫০ কিলোমিটার এলাকায় বিএসএফ এর কার্যক্ষেত্রের পরিধি বাড়ানো হয়েছে। এর আগে এই পরিধি ছিল ১৫ কিলোমিটার। 

এর বাইরে, নাগাল্যান্ড, মিজোরাম, ত্রিপুরা, মণিপুর এবং লাদাখেও বিএসএফ কে অনুসন্ধান এবং গ্রেফতার করার ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে। শুধুমাত্র গুজরাটে বিএসএফ-এর কার্যক্ষেত্র হ্রাস করে ৮০ থেকে কমিয়ে ৫০ কিলোমিটার করা হয়েছে। এছাড়াও রাজস্থানে বিএসএফ এর কার্যক্ষেত্রের পরিধি অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। মেঘালয়, নাগাল্যান্ড, মিজোরাম, ত্রিপুরা এবং মণিপুরের এই পাঁচটি উত্তর -পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সহ জম্মু -কাশ্মীর এবং লাদাখের জন্য বিএসএফ-এর কার্যক্ষেত্রের পরিধির কোন সীমানা নির্ধারণ করা হয়নি। পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নি এই পদক্ষেপকে ফেডেরালিজমের উপর সরাসরি আক্রমণ বলে অভিহিত করেছেন।