বিদেশের সবজি মিলছে দুর্গাপুরে

বিদেশের সবজি মিলছে দুর্গাপুরে

আরোহী নিউজ ডেস্ক: শীতকালের সবজি মানেই ফুলকপি ও বাঁধাকপি। তবে ওই সব্জির একঘেয়েমি কাটাতে রংবেরঙের ফুলকপি ও বাঁধাকপি ফলিয়ে তাক লাগিয়েছেন দুর্গাপুরের কৃষক অভিজিৎ চক্রবর্তী। আকর্ষণীয় হলুদরঙের ফুলকপি, বেগুনি রঙের ফুলকপি ও ব্রোকলি দেখতে দুর্গাপুর স্টিল টাউনশিপে তাঁর জমিতে ভিড় জমাচ্ছেন কৌতুহলী মানুষরা। পাশাপাশি স্থানীয় বাজারে ওই ফুলকপি ও বাঁধাকপির চাহিদাও বেড়েছে।  

দাম চড়া হলেও নতুনত্ব রঙের ফুলকপি ও বাঁধাকপি বেশ আকর্ষণীয় ও সাধারণ ফুল ও বাঁধাকপির থেকে অনেক বেশি সুস্বাদু। কৃষক অভিজিৎ চক্রবর্তী বলেন,   শীতকালীন সবরকম সবজি ও  ব্রোকলি চাষ করে সাফল্য মিলেছে। এই বছর নতুন সবজি হিসেবে, হলুদ রঙের ফুলকপি ও বেগুনি রঙের বাঁধাকপি ফলিয়েছি। এই জাতীয় ফুলকপি নেদারল্যান্ড ও ফ্রান্সে হয়। দুর্গাপুরের এক শস্যবীজ বিক্রেতা আমাকে এই ফুলকপি চাষ করার পরামর্শ দেন। তাঁর পরামর্শমতো আমি এই বছর দেড় হাজার হলুদ ফুলকপি, একহাজার কমলা রঙের ফুলকপি, তিন হাজার ব্রোকলি ও তিন হাজার বেগুনি বাঁধাকপি চাষ করেছি।

রঙের নতুনত্ব থাকায় ও সুস্বাদু হওয়ায় বাজারে ব্যাপক চাহিদাও রয়েছে। এই সময় ১০ থেকে ২০ টাকায় বিকোচ্ছে সাধারণ ফুল ও বাঁধাকপি। একঘেয়েমি সাধারণ ফুল ও বাঁধাকপি খাওয়ার পরে রংবেরঙের কপির চাহিদা ভালো রয়েছে বাজারে। তবে এই প্রথমবার শহরে কম পরিমান চাষ হওয়ায় জোগান কম মিলছে।