মেগা 'জুন', মাধ্যমিক থেকে জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ফল প্রকাশের সম্ভাবনা

মেগা 'জুন', মাধ্যমিক থেকে জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ফল প্রকাশের সম্ভাবনা

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  জুনের প্রথম সপ্তাহেই প্রকাশিত হতে চলেছে মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল। দ্বিতীয় সপ্তাহে প্রকাশ হওয়ার সম্ভাবনা উচ্চমাধ্যমিকের। পাশাপাশি জুন মাসেই প্রকাশিত হবে  পশ্চিমবঙ্গ জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ফল।২০২০ সালে মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ হয়েছিল ১৬ মার্চ।  ওইদিনকেই পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন নিয়ম অনুযায়ী পরীক্ষা শেষ হওয়ার তিন মাসের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ পাবে। সেই মতোই জানা গিয়েছে, মাধ্যমিক পরীক্ষার খাতা দেখার কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়ে গিয়েছে। বাড়তি বেশ কিছু কাজ বাকি রয়েছে, যা খুব শীঘ্রই সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। এবছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীর সংখ্যা রেকর্ড ছাড়িয়েছিল। প্রায় ১১ লক্ষ ২৬ হাজার ৮৬৩ জন পরীক্ষার্থীর মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। যা অন্যান্য বছরের তুলনায় প্রায় ৫০ হাজারেরও বেশি।

১৬ মার্চ শেষ হয়েছিল এ বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা। ফল প্রকাশের ক্ষেত্রে পর্ষদ একটি নিয়ম মেনে চলে থাকে। পরীক্ষা শেষ হওয়ার তিন মাসের মধ্যে ফল প্রকাশ করার একটি রীতি রয়েছে পর্ষদের। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সূত্র উদ্ধৃত করে রিপোর্টে বলা হয়েছে, আগামী ৩ জুন ফল প্রকাশের প্রস্তুতি নিয়ে এগোচ্ছে পর্ষদ। যদিও সরকারি ভাবে দিনক্ষণ নিয়ে এখনও কিছুই জানা যায়নি। মাধ্যমিক ২০২২ এর ফলাফল প্রকাশ পাওয়ার পর পরীক্ষার্থীরা wbresults.nic.in এবং wbbse.wb.gov.in এই ওয়েব সাইট গুলিতে গিয়ে নিজের রেজাল্ট জানতে পারবে।

অন্যদিকে জুন মাসে মাধ্যমিকের পরেই প্রকাশিত হতে পারে উচ্চমাধ্যমিকের ফলাফল। চলতি মাসের শেষের দিকে ও জুন মাসের প্রথমেই  ফলপ্রকাশের বিষয়টি নিয়ে সংসদ বৈঠকে বসবে। সেখানেই স্থির হবে চূড়ান্ত দিনক্ষণ। উচ্চমাধ্যমিকের ফলাফল প্রকাশ হওয়ার কথা জুনের ১৫ তারিখের মধ্যে। সেই লক্ষ্যেই এগোচ্ছে সংসদ। মাঝে বিভিন্ন জেলা শিক্ষা আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনা হবে। তাদের প্রস্তুতি খতিয়ে দেখা হবে। এরপর শিক্ষাদপ্তরের চূড়ান্ত অনুমোদন মিললেই ফলঘোষণার দিনক্ষণ জানাবে সংসদ। দু বছর পর এই বছর একাধিক জটিলতা কাটিয়ে এপ্রিল মাসের ২ তারিখ থেকে শুরু হয়েছিল উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। মাঝে প্রায় এক সপ্তাহের জন্য ছুটি পেয়ে চলে পরীক্ষার্থীরা অবশেষে ২৭ তারিখ শেষ হয় উচ্চমাধ্যমিক। এবছর মোট ৮ লক্ষেরও বেশি পরীক্ষার্থী উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছে। হোম সেন্টারে পরীক্ষা হওয়ার জন্য সংসদ আগেই নির্দেশিকা দিয়ে জানিয়ে দিয়েছিল বিষয়ভিত্তিক শিক্ষকরা ওইদিন পরীক্ষাকেন্দ্রে থাকতে পারবেন না। শুধু তাই নয় দফায় দফায় একাধিক নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফে পরীক্ষাকে নির্বিঘ্নে পরিচালনা করার জন্য। হোম সেন্টারে পরীক্ষা নেওয়া সংসদের কাছে চ্যালেঞ্জের বিষয় ছিল বলেই মনে করেছিল আধিকারিকদের একাংশ। এসবের পাশপাশি প্রকাশিত হওয়ার সম্ভাবনা জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার ফল। এবছর পশ্চিমবঙ্গ জয়েন এন্ট্রান্স বোর্ডের পরীক্ষা হয়েছিল 30 শে এপ্রিল উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণার কিছুদিন আগে বা পরে এই ফল প্রকাশ পায় অনুমান করা হচ্ছে জুন মাসের মাঝে উচ্চ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশিত হলে প্রকাশিত হবে জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ফলও।