সায়নী ঘোষকে আটক করতে ত্রিপুরায় তৃণমূল নেতাদের হোটেলে পুলিশ

সায়নী ঘোষকে আটক করতে ত্রিপুরায় তৃণমূল নেতাদের হোটেলে পুলিশ

আরোহী নিউজ ডেস্ক: ত্রিপুরায় ফের আইনি বিপাকে তৃণমূল। রবিবার সকালে ত্রিপুরায় তৃণমূল নেতাদের হোটেলে হানা দেয় পুলিশ। বাংলার যুব তৃণমূল সভাপতি সায়নী ঘোষকে আটক করতেই হোটেল ঘিরে রাখে পুলিশ। হোটেলে আটকে পড়েন সায়নী ঘোষ, কুণাল ঘোষ ও সুস্মিতা দেব। তবে সায়নীকে থানায় নিয়ে যেতে বাধা দেন কুণাল ঘোষ।

ত্রিপুরা পুলিশের অভিযোগ, সায়নী ঘোষের গাড়ির ধাক্কায় আহত হয়েছেন একজন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই এদিন সকালে পোলো টাওয়ার হোটেলে পৌঁছায় পুলিশ। সেই হোটেলেই রয়েছেন কুণাল ঘোষ, সুস্মিতা দেব, সায়নী ঘোষেরা। যদিও সায়নী ঘোষ আটক করতে পুলিশকে আগে নোটিশ দিতে হবে বলে দাবি করেন কুণাল ঘোষ। তাই সায়নীকে থানায় নিয়ে যেতে বাধা দেন তিনি। এখনও পুলিশ সেই হোটেল ঘিরে রেখেছে বলেই জানা গিয়েছে।

এই প্রসঙ্গে কুণাল ঘোষ জানান, 'বিজেপি ভয় পেয়েছে, তাই বারবার পুলিশ পাঠাচ্ছে, গুণ্ডা পাঠাচ্ছে। পুলিশকে দলদাসে পরিণত করেছে ওঁরা। তবে আমরা সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে থানায় যাব।  কেন ডেকেছে দেখব।' থানায় যাওয়া প্রসঙ্গে সায়নী ঘোষের বলেন, 'আমরা তো পালিয়ে বেরাতে আসিনি। চোখে চোখ রেখে লড়াই করতে এসেছি। তাই ডেকেছে যখন থানায় অবশ্যই যাব।' প্রসঙ্গত, সামনেই ত্রিপুরার পুরভোট। তাই এদিন সে রাজ্যে ভোটের প্রচারে যাচ্ছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।