লখিমপুর খেরিতে গর্জে উঠলেন রাহুল-প্রিয়াঙ্কা

লখিমপুর খেরিতে গর্জে উঠলেন রাহুল-প্রিয়াঙ্কা

আরোহী নিউজ ডেস্ক: সমস্ত বাধা পেরিয়ে লখিমপুর খেরিতে পৌঁছেই গর্জে উঠলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি। সেখানে পৌঁছেই দেখা করলেন নিহত কৃষকদের পরিবারের সঙ্গে। দেখা হতেই পরিবারের সবাইকে জড়িয়ে ধরলেন দুই ভাইবোন। দিনভর টানাপোড়েনের পর শেষপর্যন্ত লখিমপুর খেরিতে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা শেয়ার করা ছবিতে গান্ধি ভাই-বোনের পালিয়া তেহসিলের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায়। নিহত কৃষকের বাবা-মাকে সাহায্যের আশ্বাস দিয়ে জড়িয়েও ধরেন তাঁরা। বললেন ন্যায় না পাওয়া পর্যন্ত এই লড়াই চলবে।

বুধবার দুপুরে উত্তরপ্রদেশ সরকার অনুমতি দেওয়ার পরেই লখিমপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন রাহুল। কিন্তু বেশ কিছুক্ষনের জন্য লখনউ বিমানবন্দরে তৈরি হয় নাটকীয় মুহূর্ত। রাহুল গান্ধির অভিযোগ, পুলিশ অনুমতি দিয়েও লখিমপুর খেরিতে যেতে দিচ্ছেন না। যদিও তার কিছুক্ষণ পরে ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল ও পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নি সহ কয়েকজন কে নিয়ে লখিমপুর পৌছন রাহুল গান্ধি। সেখানে পৌছেই সীতাপুরে গিয়ে দেখা করেন বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধির সঙ্গে।   তারপরেই দেখা করেন মৃত কৃষকদের পরিবারের সঙ্গে। দেখা করে সমস্ত রকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। 
লখিমপুর খেরিতে কৃষক মৃত্যু নিয়ে ক্রমশ চড়ছে রাজনৈতিক পারদ। এদিন মৃত কৃষকদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করার পাশাপাশি মৃত সাংবাদিকের পরিবারের সঙ্গেও দেখা করেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি।