বিপদ এড়াতে তামিলনাড়ুর ২২ জেলায় বন্ধ স্কুল-কলেজ 

বিপদ এড়াতে তামিলনাড়ুর ২২ জেলায় বন্ধ স্কুল-কলেজ 

আরোহী নিউজ ডেস্ক:  অতি ভারী থেকে প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকায় তামিলনাড়ুর ২২টি জেলায় স্কুল-কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত প্রশাসনের। বৃহস্পতিবার থেকেই ফের ভারী বৃষ্টি-তে ভাসছে চেন্নাই সহ গোটা তামিলনাড়ু। কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, শুক্রবার তিরুনেলাভেলি, থুতুকুডি, রমনাথপুরম, পুদুকোট্টাই ও নাগাপাট্টিনামে ভারী থেকে অতি ভারী, এমনকি প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। বেশকিছু জায়গায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। চেন্নাইয়ের আবহাওয়া দফতর সূত্রেও জানানো হয়েছে, রাজ্যজুড়ে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে। বিক্ষিপ্তভাবে চারটি জেলায় ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। বাকি অংশগুলিতে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। পুদুচেরী ও কাড়াইকালেও মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ও আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস দেখেই তামিলনাড়ুর ২২টি জেলায় সমস্ত স্কুল-কলেজে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এরমধ্যে থুতুকুডি, কন্যাকুমারী, তিরুনেলিভেলি, তিরুভারুর, তেনকাশি ও ভিল্লুপুরম জেলাও রয়েছে। বৃহস্পতিবারই একটানা বৃষ্টির জেরে থাঞ্জাভুরে বাড়ির দেওয়াল চাপা পড়ে এক ৫ বছরের শিশুর মৃত্যু হয়। সালেমেও একাধিক মাটির বাড়ি বৃষ্টিতে ভেঙে পড়ার খবর মিলেছে। একাধিক রাস্তাও ভেঙে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে প্রশাসন সূত্রে। ভারী বৃষ্টিতে উড়ান পরিষেবাও ব্যহত হয়েছে। চলতি মাসের শুরুতেও রাজ্যজুড়ে যে প্রবল বৃষ্টি শুরু হয়েছিল, তাতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে তামিলনাড়ু। একের পর এক নিম্নচাপের প্রভাবে তামিলনাড়ু, অন্ধ্র প্রদেশ, কেরল, পুদুচেরীর মতো রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি ভাসছে। তামিলনাড়ু ও কর্নাটক জুড়ে যে ভারী বৃষ্টি শুরু হয়, তার প্রভাবে ইতিমধ্যেই উত্তর চেন্নাই সহ একাধিক এলাকা জলমগ্ন হয়ে রয়েছে। এরইমধ্যে নতুন করে বৃষ্টি শুরু হওয়ায় আরও বিপদ বাড়তে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে।