তৃণমূলের রাজনীতির কারণেই শুভেন্দু বাদ পড়েছেন, কটাক্ষ শমীক ভট্টাচার্যের 

তৃণমূলের রাজনীতির কারণেই শুভেন্দু বাদ পড়েছেন, কটাক্ষ শমীক ভট্টাচার্যের 

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  গঙ্গাসাগর মেলার নতুন নজরদারি কমিটি থেকে বাদ পড়েছেন শুভেন্দু অধিকারী । তৃণমূল অর্থাৎ শাসকদলের ঘৃণ্য রাজনীতির কারণেই বাত করতে হচ্ছে বিরোধী দলনেতাকে এমনটাই বক্তব্য বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্যের। মঙ্গলবার দুপুরে সাংবাদিক বৈঠকে শমীক ভট্টাচার্য জানান - "দুর্ভাগ্যজনক এবং অনভিপ্রেত রায় কলকাতা হাইকোর্টের। এই রায় বাংলার মানুষ হিসেবে আমি লজ্জিত।" 

শমীক ভট্টাচার্য আরও বলেন - "বিরোধী দল নেতা বলেনি তাকে কমিটিতে রাখার জন্য। এই রায় মানুষের কাছে দৃষ্টান্ত স্থাপন করল। আশা রাখব কলকাতা হাইকোর্ট রায় পুনর্বিবেচনা করবে। কলকাতা হাইকোর্ট ভার্চুয়ালি কাজ করছে কিন্তু সেখানে সাধারণ মানুষের জীবনের কোনো দাম নেই? সরকার যেভাবে চেয়েছে আদালত মেলার জন্য সেভাবেই রায় দান করছে। কোনটা তৃণমূলের অবস্থান তা বোঝা মুশকিল। ভোট মানুষের জন্যই ভোটের জন্য মানুষ নয় এ কথা বিবেচনা করে ভোটের সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত শাসক দলের।" 

শমীক বলেছেন, 'রাজ্য নির্বাচন কমিশন অত্যন্ত দ্রুততার সঙ্গে বিরোধীরা যাতে কোনওভাবে ঘর ছেড়ে বেরিয়ে ভোট দিতে না পারে, তার ব্যবস্থা করছে। বিরোধীরা যাতে কোনওভাবেই প্রচার করতে না পারে, তার ব্যবস্থা করছে কমিশন। গোটা পুরভোটের নামেই চলছে তামাশা।' এই চারটি পুরনিগমের ভোট যে শুধুমাত্র বিজেপির ক্ষমতা দখলের ছক, তা মনে করিয়ে দিয়েছেন শমীক। অর্থাৎ গঙ্গাসাগর মেলা এবং ভোট নিয়ে সরগরম রাজ্য রাজনীতি।