বাংলাদেশে হিন্দু নির্যাতনের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে শেখ হাসিনার প্রতি রাজ্যের বিশিষ্টজনদের আবেদন 

বাংলাদেশে হিন্দু নির্যাতনের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে শেখ হাসিনার প্রতি রাজ্যের বিশিষ্টজনদের আবেদন 

আরোহী নিউজ ডেস্ক: শিক্ষাবিদ, নাট্য ব্যক্তিত্ব, লেখক, চলচ্চিত্র অভিনেতা, পরিচালক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ পশ্চিমবঙ্গের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা বাংলাদেশে দুর্গাপুজোর প্যান্ডেল এবং মন্দিরে ভাঙচুর এবং হিন্দু হত্যার সাথে জড়িতদের খুঁজে বের করে তাদের শাস্তি দেওয়ার আবেদন জানিয়েছে শেখ হাসিনা সরকারের কাছে। রবিবার রাতে জারি করা এই খোলা চিঠিতে, ৬০ জন স্বাক্ষরকারী উল্লেখ করেছেন যে, "বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের সদস্যরা তাদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপুজোয় বিভিন্ন জায়গায় ঘটে যাওয়া বর্বরোচিত হামলা ও নির্যাতনের ফলে তা শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপন করতে পারেনি।" 

চিঠিতে আরও উল্লেখ্য করা হয়েছে যে, বাংলাদেশ সরকার ও পুলিশের তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমে অবশ্যই একটি বড় বিপর্যয় এড়ানো সম্ভব হয়েছে। কিন্তু ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের আলোয় বঙ্গবন্ধুর উদার, অসাম্প্রদায়িক চিন্তার বিরোধী শক্তির এই প্রচেষ্টা সচেতন ও মানবিক মানুষকে আঘাত করেছে। জীবন, সম্পত্তি এবং সংখ্যালঘুদের নিজস্ব ধর্ম পালনের অধিকার রক্ষার দায়িত্ব পালন করা,সংখ্যাগরিষ্ঠ সম্প্রদায়ের উপর ন্যস্ত থাকে। স্বাক্ষরকারীরা উদ্বেগের সাথে উল্লেখ করেছেন "ভারত এবং বাংলাদেশে উভয় ক্ষেত্রে এই নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ব্যর্থতা।"

স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে রয়েছেন শিক্ষাবিদ পবিত্র সরকার, থিয়েটার ব্যক্তিত্ব দেবশঙ্কর হালদার, লেখক নবকুমার বসু, নাট্য ব্যক্তিত্ব কৌশিক সেন, চলচ্চিত্র নির্মাতা কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, ঋত্বিক চক্রবর্তী সহ আরও বিভিন্ন ব্যক্তিত্ব।