সর্বোচ্চ আদালতের রায়ের পরেই ত্রিপুরায় প্রচারে নামছে তৃণমূল

সর্বোচ্চ আদালতের রায়ের পরেই ত্রিপুরায় প্রচারে নামছে তৃণমূল

আরোহী নিউজ ডেস্ক: তৃণমূল কংগ্রেস সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল যাতে নির্বিঘ্নে ভোট প্রচার করতে পারে সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত। এরপরেই ত্রিপুরায় আজ থেকেই পুরভোটের জন্য প্রচারে ঝাঁপাচ্ছে তৃণমূল। ইতিমধ্যেই সেখানেই প্রচারের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সুস্মিতা দেব, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়দের। 

জানা গিয়েছে, পুরভোটের প্রচারে ত্রিপুরায় তৃণমূলের বিশেষ দল গঠিত হয়েছে। সেখানে সুস্মিতা দেব, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিশেষ দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও সেখানে যাচ্ছেন কুণাল ঘোষ ও শান্তনু সেন। একইসঙ্গে যুব তৃণমূলের এক গুচ্ছ নেতা ত্রিপুরা যাচ্ছেন। দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বিধায়কদেরকেও।

সুপ্রিম কোর্টের রায় ঘোষণার পরই কুনাল ঘোষ টুইট করে জানান, "ত্রিপুরায় সন্ত্রাস। মান্যতা দিল সুপ্রিম কোর্ট। তৃণমূল কংগ্রেসের মামলায় পুলিশকে বলল অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন সুনিশ্চিত করতে। নিরাপত্তা দিতে হবে প্রার্থীসহ সকলকে। স্বরাষ্ট্রসচিবকে হলফনামা দিয়ে পদক্ষেপ জানাতে হবে। তৃণমূল এই রায় স্বাগত জানাচ্ছে। এটি কার্যকর করতে হবে।"

ক্ষমতায় এসেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন ত্রিপুরায় এক ইঞ্চি জমিও ছেড়ে দেবে না তৃণমূল। সেই মতই সেখানে ঝাঁপিয়ে পড়তে শুরু করে ঘাসফুল শিবির। তারপরে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় জানান বিধানসভা নির্বাচনের আগেও পুরভোটে লড়বে তৃণমূল। এই মাত্র ৫১টি ওয়ার্ডের প্রার্থী ঘোষণা করেছে তারা। এরপর বারবার বিজেপির হামলার মুখে পড়তে হয়েছে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের। অবশেষে সুপ্রিম কোর্টের রায় স্বস্তি ফিরেছে।