রোহিত যুগের শুরু এখন সময়ের অপেক্ষা 

রোহিত যুগের শুরু এখন সময়ের অপেক্ষা 

আরোহী নিউজ ডেস্ক: ইতিমধ্যেই টি-২০ ক্রিকেটে ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছেন বিরাট কোহলি। টি-২০ বিশ্বকাপের পরেই টি-২০ অধিনাকত্ব ছাড়ার কথা জানিয়েছেন বিরাট। ব্যাটিংয়ে মন দেওয়া ও বাড়তি চাপ কমানোর জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। সেক্ষেত্রে পরবর্তী অধিনায়ক যে রোহিত শর্মা হতে চলেছেন তা একেবারেই স্পষ্ট।

সম্ভবত, বিশ্বকাপ টি-২০ শেষ হলেই বিরাট কোহলির জায়গায় ক্রিকেটের টি-২০ ফরম্যাটে ভারতের অধিনায়ক হচ্ছেন রোহিত শর্মাই। শুধু তাই নয়, ২০২৩ সালে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের আসর আয়োজন করা হচ্ছে ভারতের মাটিতে। সূত্রের খবর সেই প্রতিযোগিতার আগে দলকে গুছিয়ে নেওয়ার জন্য ‘হিট ম্যান’-এর হাতে একদিনের দলের দায়িত্বও তুলে দেওয়া হতে পারে। এই বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বোর্ড কর্তা বলেছেন, “টি-২০ ও ৫০ ওভারের ক্রিকেটে দুই আলাদা অধিনায়ক রাখতে রাজি নয় বিসিসিআই। তাছাড়া নতুন অধিনায়ককেও পর্যাপ্ত সময় দিতে হবে। সেই কারণেই সীমিত ওভারের ক্রিকেটে রোহিতকেই অধিনায়ক করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।”  

কোহলির আসনে বসার ক্ষেত্রে খুব স্বাভাবিক ভাবেই নাম উঠেছিল সহ-অধিনায়ক রোহিত। যদিও আরও কয়েক জনের নাম এই তালিকায় ছিল। কেএল রাহুল, ঋষভ পন্থ, জসপ্রীত বুমরাদের মতো ক্রিকেটারদের নাম। তবে বুধবার জানা গেল রোহিতকেই অধিনায়ক হিসাবে বেছে নিতে চলেছে বোর্ড। বিশ্বকাপ শেষ হলেই টিম ইন্ডিয়ার সাপোর্ট স্টাফে একাধিক বদল ঘটবে। হেড কোচ রবি শাস্ত্রীর মেয়াদ শেষ। তাঁর জায়গায় দায়িত্ব নিচ্ছেন রাহুল দ্রাবিড়। সঙ্গে কোচিং স্টাফের একাধিক সদস্যরও বদল ঘটবে। অধিনায়ক হিসাবে রোহিতের সাফল্য বেশ ভালো। তাঁর অধিনায়কত্বে সবচেয়ে বেশিবার আইপিএল জিতেছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। এমনকি ভারতীয় দলের হয়ে যখন অধিনায়কত্বের সুযোগ পেয়েছেন তখনই তিনি দেশবাসীকে চমক করেছেন। সেই হিসাবেও তাঁর জয়ের পরিসংখ্যান চমকপ্রদ। অধিনায়ক হিসাবে তিনি এশিয়া কাপ  জয়লাভ করেছেন। তাই রোহিতকে দিয়ে বুধবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে অধিনাকত্ব করানো হয়। তাই ভারতীয় ক্রিকেটে যে ‘রোহিত রাজ’ শুরু হতে চলা স্রেফ সময়ের অপেক্ষা তা বলাই বাহুল্য।