এবার বাংলায় তৈরি হবে ক্রীড়া বিশ্ববিদ্যালয়, উদ্যোগ মুখ্যমন্ত্রীর

সবুজ-মেরুনের মতো ইস্টবেঙ্গল ক্লাবকেও ৫০ লক্ষ টাকা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এবার বাংলায় তৈরি হবে ক্রীড়া বিশ্ববিদ্যালয়, উদ্যোগ মুখ্যমন্ত্রীর

আরোহী নিউজডেস্ক: রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের যেমন শিল্পকলা, গানবাজনার প্রতি বিশেষ আগ্রহ রয়েছে, তেমনই খেলাধুলোর প্রতি তাঁর আগ্রহ কম নয়। এর আগেও তিনি রাজ্যের খেলাধুলোর প্রসারে নানান উদ্যোগ নিয়েছিলেন। এবার বাংলায় ক্রীড়া বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের নতুন সংগ্রহশালা উদ্বোধনে এসে এই ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

জানা যাচ্ছে, এদিন ইস্টবেঙ্গল মাঠের অনুষ্ঠান মঞ্চেই এই বিষয়ে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর সঙ্গে ফোনে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপরই তিনি মঞ্চ থেকে ফোন করেন ইমামি, গোয়েঙ্কার মতো ইনভেস্টরদের সঙ্গে। পরে নিজের ভাষণে রাজ্যে ক্রীড়া বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির কথা ঘোষণা করেন। তিনি জানান, ইতিমধ্যেই হুগলির চুঁচুড়ায় বেসরকারি স্পোর্টস ইউনিভার্সিটি তৈরি হচ্ছে। যাঁরা খেলাধূলা ভালবাসেন, খেলাধূলা নিয়ে এগোতে চান তাঁদের কথা মাথায় রেখে ক্রীড়া বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির চিন্তা ভাবনা করছে রাজ্য সরকার। তবে কোথায় এই বিশ্ববিদ্যালয় হবে সেটা পরে ঠিক করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

পরে মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘খেলা হবে কথাটি মনে রাখার জন্য আমি রোজ বাড়িতে ১০০ বার ফুটবল নাচাই। আমি খেলতে ভালবাসি। সিপিএমের আমলে অনেক মার খেয়েছি। দুটো হাত, পায়ে অপারেশন হয়েছে। কোমরে চোট রয়েছে। তা সত্ত্বেও খেলা ভালবাসি। খেলিও। ব্যাডমিন্টন খেলি। ছোটবেলায় গুলি, লাট্টু, কবাডি খেলেছি। আদিগঙ্গায় সাঁতার কেটেছি। ঘরে বাসন মাজা, কাপড় কাচা সব করেছি। বাঁশি, তবলা, পিয়ানোও আমি খুব ভালবাসি’। এদিন সবুজ-মেরুনের মতো ইস্টবেঙ্গল ক্লাবকেও ৫০ লক্ষ টাকা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি লাল-হলুদের আর্কাইভ উদ্বোধন করলেন তিনি।