শুভমন ভেঙ্কটেশের দৌলতে আইপিএল ফাইনালে নাইটরা

শুভমন ভেঙ্কটেশের দৌলতে আইপিএল ফাইনালে নাইটরা

আরোহী নিউজ ডেস্ক : টান-টান উত্তেজনা আর থ্রিলারে ভরা ম্যাচে শেষ পর্যন্ত অষ্টমীর রাতে বাজিমাৎ করল কেকেআর। সহজ জেতা ম্যাচ জিততে শেষ ওভার পর্যন্ত মরিয়া লড়াই চালাতে হল। ৩ উইকেটে দিল্লিকে হারিয়ে আবারও আইপিএল ফাইনালে নাইটরা। একটা সময় কেকেআরের দুই তারকা শুভমন গিল ও ভেঙ্কটেশ আইয়ারের ব্যাটিং দেখে মনে হচ্ছিল ১৯ ওভারেই ম্যাচ জিতে নেবে কলকাতা। 

কিন্তু গিল-নীতীশ রানা আউট হওয়ার পরেই পর-পর উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল নাইটরা। আর চমক দিতে ম্যাচের শেষ ওভারে পেস বোলিং না করিয়ে, দিল্লির অধিনায়ক ঋষভ পন্থ বলে আনেন রবীচন্দ্রন অশ্বিণকে। আর অশ্বিণ বলে এসেই পর-পর দুটি বলে নাইটদের দুটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নেন। অশ্বিণের বলে ফিরে যান শাকিব আল-হাসান ও সুনীল নারিন। অশ্বিণের সামনে হ্যাটট্রিক করার সুযোগও এসে যায়। যদিও ১ বল বাকি থাকলেই ৬ মেরে কেকেআরের আইপিএল ফাইনাল খেলা নিশ্চিত করে দেন রাহুল ত্রিপাঠি। শুক্রবার আইপিএল ফাইনালে চেন্নাইয়ের প্রতিপক্ষ শাহরুখের দল কেকেআর। 

এদিন প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ১৩৫ রান তোলে দিল্লি। দিল্লির হয়ে শিখর ধাওয়ান করেন ৩৬ রান ও শ্রেয়স আইয়ার করেন ৩০ রান। এরপর জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্বক ভঙ্গিতে শুরু করেন শুভমন ও ভেঙ্কটেশ। অনবদ্য ভেঙ্কটেশ করেন ৪১ বলে ৫০ রান। অন্যদিকে ৪ রানের জন্য হাফসেঞ্চুরি মিস করলেও নজর কাড়লেন শুভমন গিল। তিনি আউট হন ৪৬ রানে। এরপর দ্রুত ফিরে যান দীনেশ কার্তিক,  মগ্যান, শাকিব, নারিনরা। ফলে ম্যাচ হাতছাড়া হয়ে যাওয়ার সম্ভবনা জোরাল হয় কেকেআরের। কিন্তু শেষ ওভারে ৬ মেরে ম্যাচ জেতালেন রাহুল ত্রিপাঠি। তিনি অপরাজিত থাকেন ১২ রানে। ৭ উইকেটে জিতে ফাইনালে উঠে গেল নাইট ব্রিগেড।