কুলটি থানার ডিসেরগড়ে অস্ত্র কারখানার হদিস, তদন্তে পুলিশ 

কুলটি থানার ডিসেরগড়ে অস্ত্র কারখানার হদিস, তদন্তে পুলিশ 

আরোহী নিউজ ডেস্ক: কুলটি থানার ডিসেরগড়ে একটি অস্ত্র কারখানার হদিস পেয়েছে কুলটি থানার পুলিশ। ইতিমধ্যেই ওই অস্ত্র কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি ঝাড়খণ্ড সীমান্তে নাকা চেকিং করার সময় আস মহম্মদ নামের একজনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। গ্রেফতারের সময় তার কাছ থেকে ২৫ টি 7 mm পিস্তল ও ৪৬ টি ম্যাগাজিন উদ্ধার করেছিল পুলিশ। গ্রেফতারের পর তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা শুরু করে পুলিশ।

আস মহম্মদ কে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তার কাছ থেকে আরও দুজন ব্যক্তির নাম পায় পুলিশ। পরবর্তীতে তাদেরকেও গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে কুলটির ডিসেরগড়ে ভাগাবাঁধ ৯ নম্বর এলাকায় একটি অস্ত্র কারখানার হদিস পায় পুলিশ। অস্ত্র কারখানাটিতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র পায় পুলিশ। কারখানাটি বর্তমানে সিল গালা করে দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার একটি সাংবাদিক বৈঠকে ডিসিপি পশ্চিম অভিষেক মুদি বলেন, "আস মহম্মদকে জেরা করে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ঝাড়খণ্ডের ডুবরি ও কুলটির ডিসেরগড়ে একটি অস্ত্র কারখানার হদিস পাওয়া যায়। পুলিশের সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ প্রায় এক বছর ধরে এই অস্ত্র কারখানাটি চলছিল। মুঙ্গের থেকে মিস্ত্রি নিয়ে এসে এখানে কাজ করানো হতো বলে জানা গিয়েছে।" এই কারখানা থেকে কারা কারা অস্ত্র কিনতো, কোথায় এবং কি কাজে অস্ত্র সাপ্লাই করা হতো, আর কে কে এর সাথে জড়িত রয়েছে ইত্যাদি বিষয় সরেজমিনে খতিয়ে দেখছে পুলিশ।