নাইজেরিয়ায় দস্যু হামলায় শিশু, মহিলা সহ নিহত ২০০

নাইজেরিয়ায় দস্যু হামলায় শিশু, মহিলা সহ নিহত ২০০

আরোহী নিউজ ডেস্ক: নাইজেরিয়ায় দস্যু হামলায় নিহত অন্তত ২০০ সাধারণ মানুষ। দস্যু দমনে গত সপ্তাহেই বড়সড় অভিযান চালিয়েছিল নাইজেরীয় সেনা। সেনা অভিযানে নিহত দুজন বড় মাপের দস্যু নেতা। তারপরেই সাধারণ নাগরিকদের ওপর নির্বিচারে গুলি দস্যুদের।
দস্যুদের অত্যাচারে কার্যত অতিষ্ট নাইজেরীয় প্রশাসন। এই অবস্থায় অত্যাচার থেকে সাধারণ নাগরিকদের রেহাই দিতে দস্যুদের বিরুদ্ধে বড়সড় অভিযানে নেমেছিল সেনা। নাইজেরিয়ার উত্তর-পশ্চিম এলাকার জামফারা রাজ্যের সামরি গ্রাম সংলগ্ন গুসামির জঙ্গলে সেনা অভিযানে খতম হয়েছিল দুই দুর্ধর্ষ নেতা সহ প্রায় একশো দস্যু।
আর সেনা এলাকা ছাড়তেই নেতা খুনের বদলা নিতে পাল্টা নিরীহ গ্রামবাসীদের ওপর হামলা চালায় দস্যুরা। সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, শনিবার দস্যু দল গুলি, বন্দুক নিয়ে বড় ধরনের হামলা চালায়।
প্রত্যক্ষদর্শী আতঙ্কিত গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, বাইকে চেপে আসা দস্যু দল প্রায় আটটি গ্রাম জুড়ে হামলা চালায়। বাইক থেকেই নির্বিচারে গুলি ছুঁড়তে শুরু করে তারা। আর গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনা্স্থলেই মৃত্যু হয় প্রায় চুয়ান্ন জন নিরীহ গ্রামবাসীর। বহু গ্রামবাসীকে জীবন্ত কবরও দিয়ে দেয় গ্রামবাসীরা। দীর্ঘক্ষণ ধরে দস্যু তাণ্ডব থেকে রেহাই পাননি শিশু ও মহিলারাও।
এই অবস্থায় খবর পেয়ে প্রশাসন গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছে। সন্দেহভাজন দস্যুদের সন্ধানে তল্লাশি শুরু হয়েছে।