ঘন-ঘন প্রস্রাব হলে সাবধান, শরীরে  থাকতে পারে বড় কোনও অসুখের লক্ষণ

ঘন-ঘন প্রস্রাব হলে সাবধান, শরীরে  থাকতে পারে বড় কোনও অসুখের লক্ষণ

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  মানবদেহে রেচন পদার্থ শরীরের বাইরে বেরিয়ে যায় মল,মূত্র অথবা ঘামের মাধ্যমে। একজন মানুষ সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকে রাতে ঘুমোতে যাওয়া পর্যন্ত অনেক বার মূত্র ত্যাগ করে। কিন্তু অনেকেই জানেনা দিনে কত বার প্রস্রাব হওয়া স্বাভাবিক। সাধারণত, দিনে  ২ লিটার জল পান করলে ৬ থেকে ৭ বার প্রস্রাব হতে পারে। কিন্তু যদি  দিনে ১০ থেকে ১৫ বার প্রস্রাব হয়,তাহলে সাবধান হওয়া দরকার। শরীরের জটিল রোগের ইঙ্গিত দিতে পারে এই সমস্যা। সুতরাং , ঘন-ঘন প্রস্রাব হওয়া কোন কোন জটিল রোগের উপসর্গ জেনে নিন।

১) ইউটিআই (ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন): এই সংক্রমণ মহিলাদের মধ্যে বেশি হয়ে থাকে। তবে,এই রোগ দেখা দিতে পারে পুরুষদের মধ্যেও । এই অসুখ হলে ঘন ঘন প্রস্রাব হয়।  

২) ডায়াবেটিস: ডায়াবেটিস একটি দীর্ঘস্থায়ী অসুখ। এই রোগ যে কোনও বয়সের মানুষের  হতে পারে। ADH অথবা ইনসুলিন হরমোনের বৃদ্ধি হওয়ার ফলে ঘন ঘন প্রস্রাব হয়।

৩) প্রস্টেট বৃদ্ধি (BPH): যেসব পুরুষের বয়স ৫০ বছরের বেশি, তাঁদের মধ্যেই সাধারণত এই সমস্যা দেখা যায়। কিন্তু কম বয়সীদের ঘনঘন প্রস্রাব হলে ডাক্তার দেখানো প্রয়োজন। 

৪) যৌন বাহিত রোগ (STD ): যৌন বাহিত রোগের জন্য অথবা যৌন সংসর্গে ছড়িয়ে পড়া সংক্রমণ থেকে পুরুষদের ঘন ঘন প্রস্রাব হওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। এমনকী মূত্রত্যাগের সময়ে ব্যথা এবং অস্বস্তি হয়।

সব শেষে বলা যায়,যারা এই সমস্যায় ভুগছেন,তাদের অবশ্যই একবার চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া দরকার। শরীরে কোনও ঘাতক রোগ বাসা বেঁধেছে কি না, তা বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে জানা যাবে।