রেলের চাকরিতে বাধ্যতামূলক হল ইমোশনাল ইনটেলিজেন্স টেস্ট, কি এই পরীক্ষা ? জানুন

রেলের চাকরিতে বাধ্যতামূলক হল ইমোশনাল ইনটেলিজেন্স টেস্ট, কি এই পরীক্ষা ? জানুন

আরোহী নিউজ ডেস্ক : ভারতে সরকারি চাকরিতে যোগদান দেওয়ার জন্য এতদিন পর্যন্ত নানারকম অনলাইন পরীক্ষা দেওয়ার পাশাপাশি মৌখিক এবং পার্সোনালিটি টেস্ট দেওয়া বাধ্যতামূলক ছিল।  এমন কি উপরোক্ত সব কটি পরীক্ষায় পাশ করাই ছিল চাকরি হাতে পাওয়ার অন্যতম প্রধান শর্ত। তবে এই প্রথম ভারতীয় রেল সংস্থা অনলাইন পরীক্ষা, মৌখিক ও পার্সোনালিটি টেস্টের পাশাপাশি 'ইমোশনাল ইনটেলিজেন্স' বা ইকিউ টেস্ট দেওয়া বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে।  

জানা গিয়েছে, রেলের চেয়ারম্যান এবং জেনারেল ম্যানেজারের চাকরিতে যোগ দেওয়ার জন্য আবেদন করা ৩৬ টি পদে 'ইকিউ' টেস্ট দেওয়া বাধ্যতামূলক করেছে রেল। ১২ টিরও বেশি উচ্চ আধিকারিক পদে চাকরির জন্য এই পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় রেল। সেই পরীক্ষার ফলই নির্ধারণ করবে আবেদনকারী প্রশাসনিক স্তরের কাজের জন্য যোগ্য নাকি অন্য কোনো বিভাগে তাঁকে নিযুক্ত করা হবে। ওই পরীক্ষার ফলাফলই নির্ধারণ করবে চাকরিতে যোগদানকারী ব্যক্তি ফিল্ডওয়ার্কে যাবে নাকি সমতুল্য কোনো প্রশাসনিক আধিকারিক পদে অফিসের কাজ সামলাবেন। প্যানেলে ৩৬ টি পদের জন্য ১৫-২০ মিনিটের এই ইকিউ টেস্ট দেওয়া বাধ্যতামূলক। ২০২২-এর মে মাসে ভারতীয় রেলওয়ের পক্ষ থেকে ৭ টি সচিব এবং ২৯ টি জেনারেল ম্যানেজার পদের জন্য এই পরীক্ষা আবশ্যিক করা হয়েছে। ২০১৯ সালে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও তা কার্যকর হয়নি। চাকরিপ্রার্থীদের মানসিক পরিস্থিতি বুঝতেই এই পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কতৃপক্ষ।