ঐতিহাসিক নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের, যৌনকর্মীদের পেশাকে স্বীকৃতি 

 ঐতিহাসিক নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের, যৌনকর্মীদের পেশাকে স্বীকৃতি 

আরোহী নিউজ ডেস্ক : গত প্রায় তিন দশক ধরে যৌনকর্মীদের দাবি ছিল ভারতে যৌনকর্মীর পেশাকে আইনি স্বীকৃতি দিতে হবে। বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্ট ঐতিহাসিক পদক্ষেপ নিয়েছে যৌনপেশাকে আর পাঁচটা পেশার মতো একটি পেশা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে। এর ফলে ভারতে যৌনকর্মী হিসেবে যে প্রাপ্তবয়স্ক মহিলারা স্বেচ্ছাসম্মত হয়ে কাজ করছেন পুলিশ তাঁদের হেনস্থা করতে পারবে না, দায়ের করা যাবে না ফৌজদারি মামলাও। এবার থেকে যৌনকর্মীরা সব ধরনের আইনি সমানাধিকার পাবেন। 

বৃহস্পতিবার এই নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাওয়ের নেতৃত্বাধীন তিন বিচারপতির বেঞ্চ। এদিন বেঞ্চের এই নির্দেশের ফলে প্রাপ্তবয়স্ক যে মহিলারা স্বেচ্ছাসম্মত যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করছেন তাঁদের পুলিশ এবার থেকে গ্রেফতারও করতে পারবে না।
এদিন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাওয়ের ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, যৌনপল্লি চালানোটা পুরোপুরিভাবেই বেআইনি। 

এর পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, যৌনকর্মীদের ছেলেমেয়েদের তাদের মায়ের সঙ্গে থাকার সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে। মা যৌনকর্মী হওয়ার কারণে যৌনকর্মীদের সন্তানদের মায়ের কাছ থেকে আলাদা করা যাবে না। যৌনকর্মী এবং তাঁদের ছেলেমেয়েদের একত্রে মর্যাদার সঙ্গে সমাজে বেঁচে থাকার অধিকার রয়েছে।

যৌনকর্মীদের পেশাগত স্বীকৃতি দেওয়ার দাবিতে একাধিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গত কয়েক দশক ধরেই লাগাতার আন্দোলন করছে। স্বেচ্ছাসেবীদের সেই দাবি সুপ্রিম কোর্টে ঐতিহাসিক স্বীকৃতি লাভ করল।