বিশ্বকাপের আগে চোট-আঘাতে বিধ্বস্ত ভারত, চিন্তায় দল নির্বাচকরা

বিশ্বকাপের আগে চোট-আঘাতে বিধ্বস্ত ভারত, চিন্তায় দল নির্বাচকরা

আরোহী নিউজ ডেস্ক:  টি-২০ বিশ্বকাপ যত এগিয়ে আসছে ততই চোট-আঘাতের সমস্যা বাড়ছে ভারতীয় ক্রিকেটে। টি-২০ বিশ্বকাপের আগে চোটের কারণে ছিটকে গিয়েছিলেন রবীন্দ্র জাডেজা। আরও এক সিনিয়র ক্রিকেটারকে হারাল ভারত। একদিকে যখন কোভিড আক্রান্ত হওয়ায় অস্ট্রেলিয়া ও সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজ থেকে ছিটকে গিয়েছেন মহম্মদ শামি, টি-২০ বিশ্বকাপেও তাঁর জায়গা হবে কিনা নিশ্চিত নয়। ঠিক তখন চোটের জন্য এবার বিশ্বকাপের দল থেকে ছিটকে গেলেন দলের অন্যতম সেরা পেস অস্ত্র জসপ্রীত বুমরাহ। সূত্রের দাবি, পিঠের ব্যথায় কাবু বুমরাহ আগামী ৪-৬ মাস মাঠের বাইরে থাকবেন। সুতরাং বিশ্বকাপে তাঁর খেলার প্রশ্নই উঠছে না। যে পিঠের ব্যথার জন্য ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সীমিত ওভারের সিরিজ এবং এশিয়া কাপে খেলতে পারেননি বুমরাহ, সেই পিঠের ব্যথা আবার ভোগাচ্ছে তাঁকে। ভারতীয় বোর্ড জানিয়েছে, পিঠের ব্যথার জন্যই বুমরাহ দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টি-২০ খেলতে পারেননি। বুধবার রাতে বুমরাহর খেলার কথা থাকলেও মঙ্গলবার অনুশীলনের সময় তিনি ফের পিঠের ব্যথার কথা জানান। বোর্ডের  মেডিক্যাল টিম তাঁর পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে বুধবার খেলার অনুমতি দেয়নি বুমরাহকে।

প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে তাঁর জায়গায় মহম্মদ সিরাজকে দলে নেওয়ার কথা ঘোষণা করল বোর্ড। যদিও টি-২০ বিশ্বকাপে সিরাজকে রাখা হবে কিনা তা এখনই নিশ্চিত নয়। তাঁর বোলিং দেখে বিচার করবেন নির্বাচকরা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের রিজার্ভ দলে রয়েছেন মহম্মদ শামি এবং দীপক চাহার। তাঁদের মধ্যে শামির করোনা হওয়ায় তিনি অস্ট্রেলিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ়ে খেলতে পারেননি। চাহার দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে খেলেছেন। উইকেটও পেয়েছেন। ফলে চাহারকে প্রথম একাদশেও দেখা যেতে পারে বিশ্বকাপে।