আত্মহত্যার চেষ্টা মামলায় দোষী সাব্যস্ত কুণাল, শাস্তি মকুব বিচারকের

আত্মহত্যার চেষ্টা মামলায় দোষী সাব্যস্ত কুণাল, শাস্তি মকুব বিচারকের

আরোহী নিউজ ডেস্ক: আত্মহত্যার চেষ্টা মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। এদিন কুণাল ঘোষকে দোষী সাব্যস্ত করেন এমপি-এমএলএ আদালতের বিচারক মনোজ্যোতি ভট্টাচার্য। তবে দোষী সাব্যস্ত হলেও শাস্তি মকুব করেন বিচারক। ফলে স্বস্তিতে কুণাল ঘোষ। কুণালের বিরুদ্ধে পুলিশি হেফাজতে থাকাকালীন আত্মহত্যার চেষ্টার অভিযোগ ওঠে। ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করেছিল হেস্টিংস থানার পুলিশ। ২০১৪ সালে বেআইনি অর্থ লগ্নি সংস্থা সারদার আর্থিক তছরুপের ঘটনায় গ্রেফতার হন কুণাল ঘোষ। সেই সময় প্রেসিডেন্সি জেলে থাকাকালীন ১৩ নভেম্বর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তাঁকে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কুণালের পেটে প্রচুর ঘুমের ওষুধ পাওয়া যায়। সেই সময়েই কুণালের বিরুদ্ধে জেলের ভিতরে ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টার অভিযোগ দায়ের হয়।

শুক্রবার সেই মামলার শুনানি ছিল এমপি-এমএলএ আদালতে। এদিনের শুনানিতে কুণালকে আত্মহত্যার চেষ্টার অপরাধে দোষী সাব্যস্ত করেন বিচারপতি মনোজ্যোতি ভট্টাচার্য। তবে দোষী সাব্যস্ত হলেও কুণালের সামাজিক সম্মানের কথা ভেবে তাঁর শাস্তি মকুব করেন বিচারপতি। জানান, ‘কুণালের আত্মহত্যা করার সিদ্ধান্ত ঠিক ছিল না। কারণ আত্মহত্যা কখনওই কোনও সমস্যার সমাধান হতে পারে না।’ এদিকে কুণাল দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় জেল কর্তৃপক্ষের ভূমিকা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।