‘নতুন পেনসিল চাইলেই মা মারে’, মূল্যবৃদ্ধির খোঁচায় মোদিকে একরত্তির চিঠি

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ওই চিঠির একটি অংশ নিয়ে কার্যত তোলপার নেটপাড়া

‘নতুন পেনসিল চাইলেই মা মারে’, মূল্যবৃদ্ধির খোঁচায় মোদিকে একরত্তির চিঠি

আরোহী নিউজ ডেস্ক: বিগত কয়েক বছরে মূল্যবৃদ্ধির জ্বালায় জ্বলছে দেশবাসী। বিশেষ করে করোনা পরবর্তী সময়ে জ্বালানী তেল-সহ দৈনিন্দিন জীবনের ব্যবহার্য জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে। অপরদিকে করোনার ধাক্কায় দেশের বেশিরভাগ সাধারণ মানুষের গড় আয় কমেছে। বিরোধীদের দাবি, এই টালমাটাল পরিস্থিতিতে কার্যত ঠুঁটো জগন্নাথের মতো বসে রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে মোক্ষম প্রশ্ন ছুঁড়ে দিল এক খুদে। চাল-ডাল-তেল নয়, তাঁর অভিযোগ সামান্য রবার-পেনসিলের দামও বেড়ে গিয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখে ছয় বছরের ওই খুদের প্রশ্ন, এখন নতুন পেনসিল চাইলে মা মারে, আমি কী করব?

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ওই চিঠির একটি অংশ নিয়ে কার্যত তোলপার নেটপাড়া। কাঁচা হাতে হিন্দিতে লেখা ওই চিঠি লিখেছে উত্তর প্রদেশের কনৌজ জেলার ছোট্ট শহর ছিবড়ামউয়ের বাসিন্দা কৃতি দূবে। সে প্রথমশ্রেণির পড়ুয়া। মূলত মূল্যবৃদ্ধির জন্য তাঁকে কতটা সমস্যায় পড়তে হচ্ছে সেটাই সে লিখেছে চিঠিতে। স্থানীয় জেলা আধিকারিকের কাছে পাঠানো ওই চিঠিতে কৃতি আবেদন করেছে যেন এটি প্রধানমন্ত্রী-জীর কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

 

প্রধানমন্ত্রীকে লেখা ওই চিঠিতে ওই খুদে পড়ুয়া লিখেছে, ‘আমি আমার নাম কৃতি দুবে। আমি ক্লাস ওয়ানে পড়ি। মোদীজী, জিনিসপত্রের দাম খুব বেড়ে গিয়েছে। এমনকি আমার পেনসিল-রাবারও দামি হয়ে গিয়েছে। ম্যাগির দামও বেড়ে গিয়েছে। এখন নতুন পেনসিল চাইলে মা মারে, আমি কী করব? অন্য বাচ্চারা যে আমার পেনসিল চুরি করে নেয়’। কৃতির বাবা বিশাল দূবে পেশায় আইনজীবী। তিনি অবশ্য একরত্তির কাণ্ডে লজ্জিত। তাঁর দাবি, সম্প্রতি আমার মেয়ে স্কুলে পেনসিল হারিয়ে ফেলায় বকা দিয়েছিল ওর মা। সেই সময় আমার স্ত্রী বলেছিল যে জিনিসপত্রের কত দাম বেড়ে গিয়েছে। সেই বিষয়ে ক্ষোভ জানাতেই প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছে আমার মেয়ে।