অবিলম্বে ইউক্রেনবাসীর দুর্দশার অবসান হওয়া উচিত, যৌথ বিবৃতি পেশ মোদি-ম্যাক্রোঁর

অবিলম্বে ইউক্রেনবাসীর দুর্দশার অবসান হওয়া উচিত, যৌথ বিবৃতি পেশ মোদি-ম্যাক্রোঁর

আরোহী নিউজ ডেস্ক: তিন দিনের ইউরোপ সফরের শেষ দিনে ফ্রান্সে পৌঁছন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সাক্ষাৎ করেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সঙ্গে। আর তারপরই ম্যাক্রোঁর সঙ্গে যৌথ বিবৃতিতে রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন নরেন্দ্র মোদি। জানান, অবিলম্বে ইউক্রেনের মানুষের দুর্দশার অবসান হওয়া উচিত। 

বুধবার কোপেনহেগেনে নর্ডিক দেশ অর্থাৎ ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, আইসল্যান্ড, নরওয়ে ও সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক সেরে ফ্রান্সে উড়ে যান মোদি। তাঁকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ। মোদিকে বুকে টেনে নেন তিনি। বিদেশ মন্ত্রক সূত্রে খবর, মোদি-ম্যাক্রোঁর বৈঠকে ভারত এবং ফ্রান্সের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক একাধিক ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়। আলোচনা হয়েছে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ নিয়েও। এরপরই যৌথ বিবৃতি দেন মোদি-ম্যাক্রোঁ। 

যৌথ বিবৃতিতে দুই দেশের প্রধান জানান,  'ইউক্রেনে যুদ্ধ চলার ফলে যে মানবিক সংকট সৃষ্টি হয়েছে, ভারত ও ফ্রান্স সেজন্য গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।' বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, 'ইউক্রেনে নিরীহ মানুষ নিহত হচ্ছেন। দুই দেশই এই ঘটনার নিন্দা করছে। অবিলম্বে যুদ্ধের অবসান হওয়া উচিত। দু'পক্ষের উচিত আলোচনায় বসে বিরোধ মিটিয়ে নেওয়া।' প্রসঙ্গত, এখনও পর্যন্ত পাশ্চাত্য দেশগুলির সঙ্গে সুর মিলিয়ে সরাসরি রাশিয়ার নিন্দা করেনি দিল্লি। রাষ্ট্রপুঞ্জেও রাশিয়ার বিরুদ্ধে ভোটদানেও বিরত থেকেছে ভারত। বুধবার ফ্রান্সের সঙ্গে যৌথ বিবৃতিতে মূলত ইউক্রেনে মানবিক সংকটের উপরেই গুরুত্ব দিয়েছে ভারত।