শিকড়ের টান! মৃত্যুপথযাত্রী বৃদ্ধাকে পাকিস্তান যাওয়ার মঞ্জুরি দিল পাকিস্তান হাইকমিশন

শিকড়ের টান! মৃত্যুপথযাত্রী বৃদ্ধাকে পাকিস্তান যাওয়ার মঞ্জুরি দিল পাকিস্তান হাইকমিশন

ভারত-পাকিস্তান একে অপরের ‘শত্রু’ দেশ। গোলাগুলি বর্ষন অব্যাহত। এই পরিস্থিতিতে ৯১ বছরের রিনা ছিবার নিজের ইচ্ছেপূরণ করার জন্য পাকিস্তানে নিজের ভিটেমাটি দেখতে গেলেন যা রূপকথার সামিশ।

দেশভাগের পর ১৯৪৭ সালে রাওয়ালপিন্ডির বাড়ি ছেড়ে ভারতে চলে আসে রিনার পরিবার। রিনা তখন বছর পনেরোর কিশোরী। কিন্তু শিকড়কে ভুলতে পারেননি বর্তমানে ৯১ বছরের রিনা।

সম্প্রতি দুই দেশের কাছে আর্জি জানান তিনি, একবার রাওয়ালপিন্ডি যেতে চান, পৈতৃক বাড়িতে ফিরতে চান। বেঁচে-বর্তে থাকা প্রতিবেশী, বন্ধুদের দেখতে দেখার ইচ্ছে বৃদ্ধার। 

শত্রুতার সম্পর্ক মুছে সৌজন্য দেখায় পাকিস্তান। তিন মাসের ভিসা মঞ্জুর করা হয় রিনা ছিবারের। তিনি বলেন, "আমার ও একান্নবর্তী পরিবারের অন্য ভাইবোনেদের বন্ধুরা ছিলেন বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ। অনেকেই ছিলেন মুসলমান।" আর‌ও বলেন, "ওই বাড়ি, রাস্তাঘাট, প্রতিবেশীরা আমৃত্যু আমার হৃদয়ে থেকে যাবে। মোছা যাবে না।"

শিকড়ের টান! মৃত্যুপথযাত্রী বৃদ্ধাকে পাকিস্তান যাওয়ার মঞ্জুরি দিল পাকিস্তান হাইকমিশন 

ভারত-পাকিস্তান একে অপরের ‘শত্রু’ দেশ। গোলাগুলি বর্ষন অব্যাহত। এই পরিস্থিতিতে ৯১ বছরের রিনা ছিবার নিজের ইচ্ছেপূরণ করার জন্য পাকিস্তানে নিজের ভিটেমাটি দেখতে গেলেন যা রূপকথার সামিশ।


দেশভাগের পর ১৯৪৭ সালে রাওয়ালপিন্ডির বাড়ি ছেড়ে ভারতে চলে আসে রিনার পরিবার। রিনা তখন বছর পনেরোর কিশোরী। কিন্তু শিকড়কে ভুলতে পারেননি বর্তমানে ৯১ বছরের রিনা।


সম্প্রতি দুই দেশের কাছে আর্জি জানান তিনি, একবার রাওয়ালপিন্ডি যেতে চান, পৈতৃক বাড়িতে ফিরতে চান। বেঁচে-বর্তে থাকা প্রতিবেশী, বন্ধুদের দেখতে দেখার ইচ্ছে বৃদ্ধার। 


শত্রুতার সম্পর্ক মুছে সৌজন্য দেখায় পাকিস্তান। তিন মাসের ভিসা মঞ্জুর করা হয় রিনা ছিবারের। তিনি বলেন, "আমার ও একান্নবর্তী পরিবারের অন্য ভাইবোনেদের বন্ধুরা ছিলেন বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ। অনেকেই ছিলেন মুসলমান।" আর‌ও বলেন, "ওই বাড়ি, রাস্তাঘাট, প্রতিবেশীরা আমৃত্যু আমার হৃদয়ে থেকে যাবে। মোছা যাবে না।"