স্বাস্থ্যসাথী কার্ড গ্রাহ্য না করলে নেওয়া হবে কড়া পদক্ষেপ, বৈঠকে কড়া বার্তা মমতা

স্বাস্থ্যসাথী কার্ড গ্রাহ্য না করলে নেওয়া হবে কড়া পদক্ষেপ, বৈঠকে কড়া বার্তা মমতা

আরোহী নিউজ ডেস্ক: 'স্বাস্থ্যসাথী কার্ড না নিলে প্রয়োজনে হাসপাতালের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ করা হবে'। করোনা পরিস্থিতি নিয়ে নবান্নের সভাগৃহে জরুরি বৈঠকে এমন বার্তাই দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, রাজ্যের দেওয়া স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে রাজ্যেই চিকিৎসার করানোরও পরামর্শ দিলেন তিনি।

বুধবার নবান্নে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি ভিত্তিক বৈঠক করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিনের বৈঠকে উপস্থিত  ছিলেন সমস্ত জেলার জেলাশাসক, স্বাস্থ্য আধিকারিক ও মেডিক্যাল কলেজে সুপাররা। আর সেখানেই রাজ্যোর কোভিড পরিস্থিতির পাশাপাশি স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়েও সরব হন তিনি। তিনি জানিয়েছেন স্বাস্থ্যসাথী কার্ড গ্রাহ্য করা না হলে জরুরি পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এর পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে অন্য রাজ্যে চিকিৎসা করালে, আমাদের এখানকার টাকা অন্য রাজ্যে চলে যায়। আমি চাইব, আমাদের এখানকার টাকা এখানেই থাকুক'।

অন্যদিকে কোভিড পরিস্থিতির বৈঠকে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়ারও কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী, রাজ্য পুলিশ, কলকাতা পুলিশ, জেলা প্রশাসনকে  নির্দেশ রক্তদান শিবির করার উপর জোর দিতে হবে। রক্তদান শিবির করার জন্য উৎসাহ দিতে হবে ক্লাবগুলোকেও।  মালদহ, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, জলপাইগুড়ি ও ঝাড়গ্রাম জেলায় কোভিড টিকাকরণের হার এখনও ৯০ শতাংশের নিচে। টিকাকরণ বাড়াতে হবে। জেলা হাসপাতাল থেকে রেফার করার প্রবণতা কমাতে হবে। অ-কোভিড রোগীদের চিকিৎসায় কোনো গাফিলতি করা যাবে না। স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোর পরিকাঠামো আরো ভালো করতে হবে। হাসপাতালগুলোয় সারপ্রাইজ ভিজিট করতে হবে। ডেঙ্গু ও ম্যালেরিয়া প্রতিরোধে এখন থেকেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।