ঠাকুরবাড়ির মেয়ে হয়েও বিকিনি পড়েছিলেন ১৯৬৭ সালে, বলিউডে উঠেছিল বিতর্কের ঝড়

ঠাকুরবাড়ির মেয়ে হয়েও বিকিনি পড়েছিলেন ১৯৬৭ সালে, বলিউডে উঠেছিল বিতর্কের ঝড়

গালে টোল, টানা টানা চোখের অপরুপ সুন্দরী বাঙালি কন্যা তখন রাজ করছে টলিউড-বলিউড সর্বত্র। তিনি শর্মিলা ঠাকুর। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বংশের মেয়ে হয়ে‌ও সদর্পে পা বাড়িয়েছিলেন রঙীন পর্দার অভিনেত্রী হতে।

তৎকালীন সময় অর্থাৎ ১৯৬৬ সালে বাইশ বছর বয়সী শর্মিলা মুম্বাইয়ে বিতর্কের ঝড় তোলেন। বিষয়টি ছিল সুইমস্যুট পড়া। সেসময় কেবল খলনায়িকাদের জন্য‌ই বরাদ্দ ছিল এই পোশাক। অথচ বিখ্যাত ফিল্ম ম্যাগাজিন ‘ফিল্মফেয়ার’-এর কভার পেজের জন্য সাদা কালো বিকিনি পড়ে দিব্যি ফটোশ্যুট করেছেন শর্মিলা।

তৎকালীন সংবাদপত্রে লেখা হল, শর্মিলা নাকি দৃষ্টি আকর্ষণ করতে নিজেকে নিচে নামিয়ে ফেলেছেন। ফিল্মি পার্টিতে শর্মিলাকে নিয়ে শুরু হল সমালোচনা। তাতে থোরাই কেয়ার? অ্যান ইভনিং ইন প্যারিস’ ফিল্মে আবারও তিনি পরেছিলেন সুইমসুট।

রক্ষনশীল পরিবারের গোঁড়া চিন্তাভাবনা মাটিতে মিশিয়ে নিজের ছন্দে জীবন কাটিয়েছেন। ঠাকুরবাড়ির মেয়ে হয়ে নবাবজাদা পতৌদি পরিবারের বেগম হয়েছেন। আক্ষরিক অর্থেই শর্মিলার ছক ভাঙার পদক্ষেপ শতক পেরিয়ে আজও প্রশংসিত।