আনিস হত্যা মামলা সিবিআই-কে হস্তান্তর নয়, সিটেই আস্থা হাইকোর্টের

আনিস হত্যা মামলা সিবিআই-কে হস্তান্তর নয়, সিটেই আস্থা হাইকোর্টের

আরোহী নিউজ ডেস্ক : আনিস খানের অস্বাভাবিক মৃত্যু-মামলায়  সিট্ - এর ওপরেই আস্থা রাখল কলকাতা হাইকোর্ট। সিবিআই-কে মামলা হস্তান্তর করা হবেনা। এক্ষেত্রে দ্রুত তদন্ত শেষ করে চার্জশিট পেশ করবে সিট্। এমনটাই নির্দেশ বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার। রাজ্য সরকারের নির্দেশে একটি বিশেষ দল গঠন করা হয়েছিল জ্ঞানবন্ত সিংয়ের নেতৃত্ব। সিটের তদন্তের রিপোর্ট খতিয়ে দেখে সন্তুষ্ট বিচারপতি। গত ৭ জুন মামলার শুনানি শেষ হয় । শুনানি শেষে রায়দান স্থগিত রেখেছিলেন বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা। মঙ্গলবার রায় দেওয়ার সময় বিচারপতি জানান, "এই মূহুর্তে  সিবিআই এর হাতে মামলা হস্তান্তর করার প্রয়োজন আছে বলে মনে করছি না। কেস ডায়েরি সহ যে নথি জমা পড়েছে তাতে কোনো প্রভাব খাটানোর চেষ্টা হয়নি।" 

তবে, কলকাতা হাইকোর্টের এই নির্দেশে খুশি নন আনিসের পরিবার। মৃত ছাত্রনেতার বাবা সালেম খান জানান, এখনো কোর্ট মনিটর সিবিআই তদন্তের দাবিতে অনড় তাঁরা। সিটের তদন্তে তাঁর আস্থা নেই। ফলে তিনি ডিভিশন বেন্চে ভবিষ্যতে যাবেন বলে জানিয়েছেন।   

প্রসঙ্গত, গত ১৮ মার্চ মৃত্যু হয় হাওড়ার বাসিন্দা, ছাত্রনেতা আনিস খানের। বাড়ির নিচ থেকে উদ্বার হয় আনিসের রক্তাক্ত দেহ। পরিবারের অভিযোগ ছিল,পুলিস কর্মীরা তাদের বাড়িতে এসে আনিসকে উপর থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছে। ফলে, পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে খুনের ।  সিবিআই তদন্তের দাবিতে একাধিক পিটিশন ফাইল করা হয় আদালতে। পুলিশি তদন্তে আস্থা না থাকায় ,সিবিআই  তদন্ত চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় আনিসের পরিবার। স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা দায়ের করা হয় কলকাতা হাইকোর্টে। তৎকালীন এডিজি সিআইডি জ্ঞানবন্ত সিংয়ের নেতৃত্বে তদন্ত শুরু করে রাজ্য পুলিশের সিট্। দুই পুলিস কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। বদলি করা হয় থানার ওসিকে।