আগেই কমেছিল ভোজ্য তেলের দাম, এবার কমতে পারে চিনির দামও !

আগেই কমেছিল ভোজ্য তেলের দাম, এবার কমতে পারে চিনির দামও !

আরোহী নিউজ ডেস্ক :   দেশে এবার চিনির দাম কমার সম্ভাবনা। চিনির রফতানিতে রাশ টানতে চলেছে কেন্দ্র। ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত চিনি রফতানিতে জারি থাকবে নিয়ন্ত্রণ। শুধু তাই নয় চিনির পাশাপাশি কমতে পারে ভোজ্য তেলের দামও। 

কেন্দ্রীয় ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রক জানিয়েছে, দেশে জোগান বাড়িয়ে দামে রাশ টানতে চাইছেন তারা। আর সেই কারণেই চিনি রফতানির সর্বোচ্চ সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। আগামী ১ জুন থেকে বছরে তা বেঁধে দেওয়া হয়েছে ১ কোটি মেট্রিক টনে। শুধু তাই নয়, দাম কমতে চলেছে সব ধরণের ভোজ্য তেলেরও। আগামী ২ বছর সয়াবিন ও সূর্যমুখী তেলে আমদানি শুল্ক লাগবে না বলেও জানিয়েছে কেন্দ্র। অপরদিকে, আগামী সপ্তাহের মধ্যে দাম কমতে পারে পাম তেলেরও। ইন্দোনেশিয়া থেকে ২ লক্ষ টন অপরিশোধিত তেল পাঠানো হয়েছে। যার ফলে পাম তেলেরও দাম কমার সম্ভবনা রয়েছে। এদিকে কমতে পারে সর্ষের তেলের দামও।  লিটার প্রতি ১০ টাকা পর্যন্ত দাম করার সম্ভবনার কথা জানিয়েছে কেন্দ্র। 

ভারত বিশ্বের বৃহত্তম চিনি উৎপাদনকারী দেশ।  শুধু তাই নয়,  রপ্তানিকারক দেশ হিসেবেও ব্রাজিলের পরেই আসে ভারতের নাম। দেশে চিনির দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং অভ্যন্তরীণ বাজারে সরবরাহ স্থিতিশীল নিশ্চিত করতে চিনি রফতানি বন্ধ করার পরিকল্পনা করছে।

পেট্রল-ডিজেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব সরাসরি পড়েছিল সাধারণ মানুষের হেঁশেলে। খাদ্যদ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধিতে হিমশিম খেতে হচ্ছিলো আমি জনতাকে। ভোজ্য তেল, চিনি, মাংস এমনকি শাক সবজির দামও বাড়ছিল পাল্লা দিয়ে।  তবে এবার সব ধরণের ভোজ্য তেল এবং ছিলি দাম কমার খবর নিঃসন্দেহে খুশির বলেই জানাচ্ছে বিশেষজ্ঞরা।