বর্ষাকালে কাঠের আসবাব রাখতে চান নতুনের মতো? দেখে নিন বিশেষ টিপস

বর্ষাকালে কাঠের আসবাব রাখতে চান নতুনের মতো? দেখে নিন বিশেষ টিপস


বর্ষাকালে সব কিছুরই বাড়তি যত্ন নিতে হয়। ঘরের আসবাবপত্র বা কাঠের ফার্নিচারও এর ব্যতিক্রম নয়। কাঠের ফার্নিচারের এ সময়ে যত্ন না নিলে তা নষ্ট হয়ে যায়। তাই জেনে নিন বর্ষাকালে কাঠের ফার্নিচার ভালো রাখার সহজ ৫টি কৌশল।

১•জল ও স্যাতস্যাতে আবহাওয়া কাঠের শত্রু। দেয়াল থেকে কাঠের আর্দ্রতা টানার প্রবণতা রয়েছে। তাই বর্ষাকালে দেয়াল থেকে কম করে হলেও ছয় ইঞ্চি দূরে রাখুন কাঠে আসবাবপত্র। বর্ষাকালের বৃষ্টি পড়া বন্ধ হলে জানালা খুলে দিন। এতে ঘরে আলো বাতাস প্রবেশ করবে এবং ঘর আদ্রতা মুক্ত থাকবে।

২•কর্পুর বা ন্যাপথালিন আর্দ্রতা শুষে নেয়। কাজেই বর্ষাকালে ফার্নিচারের কোণে কর্পুর বা ন্যাপথালিন দিয়ে রাখুন। শুধু মাত্র আদ্রতে শোষণ নয়, কর্পুর, ন্যাপথালিন পোকামাকড়ের হাত থেকেও আসবাবপত্রকে বাঁচায়। ন্যাপথলিনের পরিবর্তে নিমপাতা বা বড় এলাচ ব্যবহার করতে পারেন।

৩•ঘরের তাপমাত্রা ঠিক রাখতে ও স্যাঁতস্যাঁতে ভাব দূর করতে ‘হিউমিডিফায়ার’ খুব উপকারী। ঘরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকলে আসবাবও দীর্ঘস্থায়ী হবে।

৪•আসবাবপত্র পরিষ্কার করতে ভেজা কাপড় ব্যবহার করবেন না। শুকনো ও পরিষ্কার কাপড় দিয়ে কাঠের আসবাবপত্র মুছতে হবে। এমনকি হাতে জল লেগে থাকা অবস্থায় কোনো আসবাবপত্র হাত দিয়ে ধরা ঠিক নয়।

৫•কাঠের আসবাব ভালো রাখতে বছরে দু-একবার বার্নিশ বা ল্যাকোয়ার-এর পালিশ করান। এতে কাঠের ছিদ্র বন্ধ হয়, আসবাব অনেকদিন পর্যন্ত নতুনের মতো থাকে, কাঠ ফুলেও ওঠে না! যেকোনও ধরনের বোর্ডের ফার্নিচার, যেমন পারটেক্সের তৈরি আসবাবপত্র তৈরির সময়ই বোর্ডের কাটা অংশে ভাল করে পুটিং লাগিয়ে নিতে হবে।