রাজ্যের বকেয়া ১ লক্ষ ৯৮৬ কোটি টাকা, মোদিকে হিসেব দিলেন মমতা

প্রায় ৪০ মিনিটের বেশি সময় বৈঠক হয় দুজনের মধ্যে

রাজ্যের বকেয়া ১ লক্ষ ৯৮৬ কোটি টাকা, মোদিকে হিসেব দিলেন মমতা

আরোহী নিউজডেস্ক: শুক্রবার দিল্লিতে একাধিক ইস্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  রাজ্যের প্রতি কেন্দ্রের বঞ্চনা, পাওনা অর্থ আদায়, কেন্দ্রীয় এজেন্সির ‘অতিসক্রিয়তা’-সহ অন্যান্য বিষয় ছিল মুখ্যমন্ত্রীর নোটবুকে। এদিন তিনি প্রধানমন্ত্রীকে কেন্দ্রের কাছ থেকে রাজ্যের বকেয়া সংক্রান্ত ১ লক্ষ ৯৮৬ কোটি টাকার হিসেব জমা দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলেই দিল্লি পৌঁছে গিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার বিকেলে তিনি যান দিল্লির  ৭, লোককল্যাণ মার্গ অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে। সেখানে প্রায় ৪০ মিনিটের বেশি সময় বৈঠক হয় দুজনের মধ্যে।

এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হলুদ গোলাপের তোড়া এবং বাংলার মিস্টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করতে যান। মুখ্যমন্ত্রী বাটিকের কাজ করা একটি উত্তরীয় উপহার দেন মোদিকে। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীকেও স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী। এরপরই আলোচনার টেবিলে রাজ্যের বকেয়া সংক্রান্ত সমস্ত হিসেব জমা দেন মুখ্যমন্ত্রী। উল্লেখ্য, ২১শে জুলাইয়ের মঞ্চেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে রেখেছিলেন তিনি নিজে দিল্লি গিয়ে রাজ্যের বকেয়া পাওনা চাইবেন। কেন্দ্রের সাড়া না পেলে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা প্রয়োজনে দিল্লি ঘেরাও করতে বলে রেখেছেন তৃণমূল নেত্রী।

শুক্রবার তিনি যে তিন পাতার কাগজ জমা দিয়েছেন তাতে  কোভিড, প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং কেন্দ্রীয় প্রকল্প মিলিয়ে কেন্দ্রের কাছে রাজ্যের বকেয়া ১ লক্ষ ৯৬৮ কোটিরও বেশি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক সেরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সোজা চলে যান রাষ্ট্রপতি ভবনে। দেখা করেন নবনির্বাচিত রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে। তাঁকেও হলুদ গোলাপের তোড়া ও মিস্টি উপহার দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে মুখ্যমন্ত্রী সোজা দিল্লির ১৮৩, সাউথ অ্যাভিনিউয়ের বাড়িতে ফিরে যান।