আজ দুপুরেই কীর্তি আজাদের সঙ্গে তৃণমূলে পা বাড়াতে চলেছেন কংগ্রেসের অশোক তানওয়ার 

আজ দুপুরেই কীর্তি আজাদের সঙ্গে তৃণমূলে পা বাড়াতে চলেছেন কংগ্রেসের অশোক তানওয়ার 

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লীর মাটিতে পা রাখার পর থেকেই একের পর এক রহস্য উন্মোচিত হচ্ছে। আজই কংগ্রেসের কীর্তি আজাদের সঙ্গেই তৃণমূলে যোগ দিতে চলেছেন অশোক তনওয়ার। অশোক তনওয়ার হরিয়ানার কংগ্রেসের ইউনিট প্রধান ছিলেন। কিছু মাস আগেই কংগ্রেসের সঙ্গে মতের অমিল হওয়ায় দল ছেড়েছিলেন। বিকল্প পথে হাঁটার সিদ্ধান্তেই এবার তিনি তৃণমূলে যোগদান করতে চলেছেন বলেই সূত্রের খবর।  বিজেপিতে যোগদানের সম্ভবনাকে উড়িয়ে দিয়ে তিনি প্রকাশ্যেই বলেছিলেন, বিজেপি দুর্নীতিপরায়ণ আর কংগ্রেস চোর। তবে কংগ্রেস ছাড়ার পর থেকেই মনে করা হচ্ছিল অশোক তানওয়ার নিজস্ব দল গড়তে পারেন। তবে সেই সম্ভবনাতেও জল ঢেলে সুস্মিতা দেব বা সকেত গোখেলদের মতোই তিনিও ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিতে চলেছেন।

হরিয়ানার অন্যতম প্রধান দলিত মুখ অশোক তানওয়ার। দলিত ভোটব্যাঙ্ক গড়ার স্বার্থেই তাঁকে তুলে এনেছিলেন স্বয়ং রাহুল গান্ধী। কিন্তু ক্রমশই অশোকের সঙ্গে দূরত্ব বাড়তে থাকে হরিয়ানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র সিং হুডার। হরিয়ানা বিধানসভা ভোটে টিকিট ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে সেই তিক্ততা আরও খানিকটা বেড়ে যায়। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ হয়ে যায় যে প্রকাশ্য রাস্তায় নেমেও বিক্ষোভ দেখাতে দেখা যায় অশোক আনোয়ারকে। এর কিছুদিন পরেই কংগ্রেস ছাড়েন অশোক। সেই সময় তাঁকে দুষ্মন্ত চৌটালার জননায়ক জনতা পার্টিকে সমর্থন করতে দেখা গিয়েছিল। বোঝাই যাচ্ছিল আশ্রয় খুঁজছিলেন অশোক। এমতাবস্থায় তৃণমূল নিজেদের জাতীয় স্তরে প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া। আর ঠিক সেই সময়ে তৃণমূল নিজের দলকে সর্বভারতীয় স্তরে সম্প্রসারিত করতেই অশোকের যোগদান তাৎপর্যপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

সম্প্রতি কংগ্রেসকে মুহুর্মুহু আক্রমণ করেছে মমতা ব্রিগেড। কংগ্রেস শিবিরের বহু গুরুত্বপূর্ণ মুখ পা বাড়াচ্ছে তৃণমূলের দিকে। এই অবস্থায় তৃণমূল নেত্রী এবং সনিয়া গান্ধী মুখোমুখি হন কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে।