সাইকেল চালিয়ে থ্যালাসেমিয়ার  সচেতনতার  বার্তা  নদীয়ার যুবকের 

সাইকেল চালিয়ে থ্যালাসেমিয়ার  সচেতনতার  বার্তা  নদীয়ার যুবকের 

আরোহী নিউজ ডেস্ক : মারণ রোগ থ্যালাসেমিয়া। আর এই থ্যালাসেমিয়া নিয়ে সচেতনতার  বার্তা দিতে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছেন নদীয়ার যুবক সুজন অধিকারীর। এ রাজ্যের পাশাপাশি  ঝাড়খন্ড ও অন্যান্য  রাজ্যে  সাইকেলে চালিয়ে  থ্যালাসেমিয়া নিয়ে বিশেষ বার্তা দিতে চলেছেন তিনি ।

থ্যালাসেমিয়া  আক্রান্ত  শিশু যাতে  না  জন্মায় তার জন্য বিয়ের আগে অবশ্যই থ্যালাসেমিয়া পরীক্ষা করে নিতে হবে। থ্যালাসেমিয়া নিয়ে  এই  বিশেষ বার্তা দিতেই  গত ২২ নভেম্বর নদীয়ার নিজের বাড়ি থেকে  রওনা হন  সুজন। তিনি বলেন, "পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও আমি আরও ২টি রাজ্যে যাবো।" সাইকেল বেছে নেওয়ার কারন জানতে চাইলে তিনি বলেন, "সাইকেল পরিবেশ বান্ধব তাই এই বার্তা দিতে সাইকেল কে বেছে নিয়েছি।" 

মূলত থ্যালাসেমিয়া হল সমাজের একটি ভয়ঙ্কর রোগ। এই রোগ সম্পর্কে আমরা প্রত্যেকেই অবগত। এই রোগে আক্রান্তদের নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে রক্ত দিতে হয়। সেই রক্ত না দিলে তাদের প্রাণহানি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।বিশ্বে প্রতি বছর ১ লাখ শিশু থ্যালাসেমিয়া নিয়ে জন্মগ্রহণ করে।প্রতিবছর প্রায় ৭ থেকে ১০ হাজার শিশু থ্যালাসেমিয়া রোগ নিয়ে জন্মগ্রহণ করছে পৃথিবীতে। ওই যুবকের এই কর্মকাণ্ডকে  সাধুবাদ জানিয়েছেন সমাজের বিশিষ্ট জনেরা।