সচেতনতা প্রচারের মধ্যেই রাজ্যে বাড়ছে ডেঙ্গু, আক্রান্ত হাজার ছুঁইছুঁই

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের হিসাব বলছে, মঙ্গলবার পর্যন্ত রাজ্যে মোট ৯৬৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন

সচেতনতা প্রচারের মধ্যেই রাজ্যে বাড়ছে ডেঙ্গু, আক্রান্ত হাজার ছুঁইছুঁই

আরোহী নিউজডেস্ক: যত দিন যাচ্ছে ততই রাজ্যজুড়ে বাড়ছে ডেঙ্গু নিয়ে উদ্বেগ। শহর কলকাতা তো বটেই, রাজ্যের বিভিন্ন জেলাতেই রীতিমতো উদ্বেগজনকহারে বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা। এর মধ্যেই বুধবার রেকর্ড গড়ল রাজ্যে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের হিসাব বলছে, মঙ্গলবার পর্যন্ত রাজ্যে মোট ৯৬৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এখনও পর্যন্ত ৬০৪ জনের চিকিৎসা চলছে। সব থেকে খারাপ অবস্থা উত্তর ২৪ পরগনার সল্টলেক, দক্ষিণ দমদম, টিটাগর, বারাসাত এক নম্বর ব্লকের মত এলাকাগুলিতে। এখনও পর্যন্ত এই সমস্ত এলাকাতেই সব থেকে বেশি ডেঙ্গু আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে।

তবে উত্তর 24 পরগনার পাশাপাশি কলকাতা দক্ষিণ ২৪ পরগনা হুগলি, হাওড়া মুর্শিদাবাদ এমনকি শিলিগুড়িতেও ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবারই শিলিগুড়ির বাসিন্দা তিন বছরের এক শিশুর ডেঙ্গুতে মৃত্যু হয়েছে বলা জানা যাচ্ছে। এই খবর প্রকাশ্যে আসতে উত্তরবঙ্গেও ডেঙ্গু নিয়ে বেড়েছে উদ্বেগ।

তবে রাজ্যের বর্তমান ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে শুধুমাত্র সাধারণ মানুষ নন উদ্বিগ্ন খোদ কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিমও। গত সপ্তাহেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ববি হাকিম জানিয়েছিলেন, সম্প্রতি ডেঙ্গুর উপসর্গ পাল্টেছে। ফলে চিকিৎসার ক্ষেত্রেও বেশ সমস্যা হচ্ছে। স্বাস্থ্যভবন সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজ্যে কোনও বিশেষ জেলা বা ব্লকে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা বেশি কি না তার দিকে বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে প্রশাসনের তরফে। বেশি ডেঙ্গি আক্রান্ত জায়গাগুলি চিহ্নিত করে রোগ সংক্রমণের কারণ বোঝার চেষ্টা করা হচ্ছে। এই এলাকাগুলিতে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন কেন বাড়ছে, তা-ও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানা গিয়েছে। পাশাপাশি চলছে জোরদার সচেতনতামূলক প্রচার। তবুও সাধারণ মানুষের কোনও হেলদোল নেই। জায়গায় জায়গায় জল জমে থাকছে। ফলে মশার লার্ভা বৃদ্ধি পেতে সাহায্য হচ্ছে বলেই প্রশাসনিক কর্তাদের দাবি।