"ভোটের টিকিট পাওয়ার চেষ্টা", তৃণমূলের বিক্ষোভকে কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

 "ভোটের টিকিট পাওয়ার চেষ্টা", তৃণমূলের বিক্ষোভকে কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  আসলে ওসব ক্যামেরায় মুখ দেখানোর চেষ্টা।" ত্রিপুরার ঘটনার প্রতিবাদে ৬ নম্বর মুরলীধর সেনের রোডের বিজেপির রাজ্য অফিসে মমতা-অভিষেকের ছবি লাগিয়ে তৃণমূলের বিক্ষোভকে আমলই দিলেন না বিজেপির সর্ব ভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই গতকালের তৃণমূলের বিক্ষোভ নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় দিলীপ ঘোষকে। তবে তিনি এই বিক্ষোভ ও বিক্ষোভকারীদের বিশেষ গুরুত্ব দিতেই নারাজ। 

এপ্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, "এটা ভোটের টিকিট পাওয়ার চেষ্টা। ক্যামেরায় মুখ দেখানো। যদি টিকিট পাওয়া যায়।" প্রসঙ্গত, রবিবার সায়নী ঘোষকে গ্রেফতারির প্রতিবাদে ত্রিপুরার আঁচ এসে পড়ে কলকাতায়। সোমবারের পর মঙ্গলবার সকালে ৬ নম্বর মুরলীধর সেনের রোডের বিজেপির রাজ্য অফিসে মমতা-অভিষেকের ছবি লাগিয়ে দেয় তৃণমূল। পাল্টা পতাকা হাতে হাজির বিজেপি কর্মীরাও। বিজেপির রাজ্য অফিসে ব্যারিকেড করে রেখেছে পুলিশ। পাল্টা বিজেপির তরফেও শুদ্ধিকরণ করা হয়। বিজেপি নেতারা জানিয়েছেন, তৃণমূল কর্মীদের পা পড়ায়, তাঁদের রাজ্য দফতর অপবিত্র হয়েছে। তাই শুদ্ধিকরণের প্রয়োজন। তাই জন্য রাজ্য দফতরের সামনে গঙ্গাজল ছেটানো হয়।

দিলীপ ঘোষ এই কথা বলে বিষয়টিকে হালকা করতে চাইলেও বিজেপির রাজ্য দফতরে শাসকদলের হানা বেশ তাত্‍পর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।