মৃত সন্তানের সামনে দিনের পর দিন দাঁড়িয়ে থাকতে পারে মা-হাতি, কারণ কী?

মৃত সন্তানের সামনে দিনের পর দিন দাঁড়িয়ে থাকতে পারে মা-হাতি, কারণ কী?

সম্প্রতি ডুয়ার্সের রেড ব্যাঙ্ক চা বাগানে হস্তিশাবকের মৃত্যুতে মা-হাতির করুণ আকুতি বুঝিয়ে দিল- শুধুই মানুষের মধ্যেই মাতৃত্ব বাহিত হয় না, সব প্রাণীর কাছে সমানভাবে সেই মাতৃত্ব বিদ্যমান। ডুয়ার্সের এই ঘটনায় কিছু অবাক করা প্রশ্ন উঁকি দিতে শুরু করেছে যে, হাতির মধ্যে এমন কী কাজ করে, যেখানে ঘণ্টার পর ঘণ্টা, দিনের পর দিন এক জায়গায় দাঁড়িয়ে সন্তান-শোক পালনের ক্ষমতা পায়।

সন্তানকে গর্ভে ধারণ করে ভূমিষ্ঠ করা তারপর অক্লান্ত লালন-পালন। সব নিয়েই মাতৃত্ব। আর সেই সন্তানের যদি অকালে মৃত্যু হয়, তাহলে মায়ের উপর যে কী ঝড় বয়, সম্প্রতি ডুয়ার্সের রেড ব্যাঙ্ক চা বাগানে হস্তিশাবকের মৃত্যুতে মা-হাতির করুণ আকুতি বুঝিয়ে দিল- শুধুই মানুষের মধ্যেই মাতৃত্ব বাহিত হয় না, সব প্রাণীর কাছে সমানভাবে সেই মাতৃত্ব বিদ্যমান। কিছু কিছু ক্ষেত্রে আরও এক ধাপ বেশি তো কম নয়। যেমন হাতি।

ডুয়ার্সের রেড ব্যাঙ্ক চা বাগানে এক হস্তিশাবকের মৃত্যু হয়। ছবিতে ধরা পড়ে, সন্তান শোকে মা-হাতির চোখে জল। তাকে ছেড়ে যাওয়া তো দুরস্ত, শাবককে শুঁড়ে করে চা-বাগানের এদিক-ওদিক ঘোরাফেরা করতে শুরু করে মা-হাতি। সঙ্গে ছিল আরও ২৫ থেকে ৩০ টি হাতি। একদিন, দু’দিন পেরিয়ে যায়। মৃত হস্তিশাবকের দেহে পচন শুরু হয়। তখনও তাকে কাছ ছাড়া করার কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি হাতির দলের। টানা চারদিন রোদ-জল মাথায় করে দাঁড়িয়েছিল হাতির দল। চারদিনের পর মৃত হাতির শাবকের দেহ উদ্ধার করেন বনকর্মীরা। ডুয়ার্সের এই ঘটনায় কিছু অবাক করা প্রশ্ন উঁকি দিতে শুরু করেছে।