ইঞ্জিন সমস্যায় রেল দুর্ঘটনা, রিপোর্ট রেলের

ইঞ্জিন সমস্যায় রেল দুর্ঘটনা, রিপোর্ট রেলের

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  ইঞ্জিন সমস্যায় ময়নাগুড়ির বিকানের এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনা। প্রাথমিক তদন্তে ইঙ্গিত রেলের। ঘটনাস্থল পরিদর্শন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের। ময়নাগুড়ির রেল দুর্ঘটনা ঘিরে প্রথম থেকেই ধন্দ দানা বাঁধছিল। লাইনটি উত্তরবঙ্গের এলিফ্যান্ট করিডরের আওতাভুক্ত হওয়ায় দুর্ঘটনার সময় এক্সপ্রেস ট্রেনের গতিও খুব বেশি ছিল না। ঘণ্টায় মাত্র চল্লিশ কিলোমিটার বেগে ছুটছিল সেটি। ফলে, দুর্ঘটনার নেপথ্যের কারণ কী, তা ঘিরে ধন্দ তৈরি হয়েছিল।

রেলট্র্যাক, ফিশপ্লেট নাকি ইঞ্জিন তা ঘিরে রীতিমতো ধোঁয়াশা তৈরি হয়। এই অবস্থায় শুক্রবার সকালে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। নিজে দাঁড়িয়ে থেকে উদ্ধারকাজও তদারক করেন তিনি। আহতদের হাসপাতালে দেখতেও যান তিনি। লাইন থেকে সরানো হয় দু্র্ঘটনাগ্রস্ত এক্সপ্রেস ট্রেনটিকে। 

এদিকে, এর মধ্যেই আপ বিকানের এক্সপ্রেসের ইঞ্জিন পরীক্ষা করে দেখেন রেলের অফিসাররা। আর ইঞ্জিন পরীক্ষার পর প্রাথমিক যে রিপোর্ট সামনে এসেছে তা রীতিমতো চাঞ্চল্যকর।

রেল সূত্রে খবর, এই ইঞ্জিন ওয়াপ ফোর ক্যাটেগরির। চারটি করে ট্র্যাকশন মোটর থাকে। ট্র্যাকশন মোটর ইঞ্জিনের চাকাকে রেল লাইনে ধরে রাখতে ও চাকাকে ঘোরাতে সাহায্য করে। রেল জানিয়েছে, দুর্ঘটনার সময় এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিনের একটি ট্র্যাকশন মোটর ভেঙে পড়েছিল। সেই কারণেই এই বিপত্তি। তবে, তদন্ত রিপোর্টে ইঞ্জিনের ত্রুটি সামনে এলেও, রেল দুর্ঘটনায় প্রাণহানির দায় কার, উঠছে প্রশ্ন।