ডান্স ডান্স জুনিয়রের কভার পেজে গনেশ পুজো করে নাচ শুরু করায় প্রশ্ন তুললেন রানা সরকার!

ডান্স ডান্স জুনিয়রের কভার পেজে গনেশ পুজো করে নাচ শুরু করায় প্রশ্ন তুললেন রানা সরকার!

বাঙালি বিভিন্ন সময় সংস্কৃতির পালনে বিভিন্ন রকম অনুষ্ঠান হয় এমনকি বাঙালি সংস্কৃতির বিভিন্ন ক্ষেত্র উদযাপনের জন্য সরকারের তরফ থেকে ছুটি ও ঘোষণা করা হয়। বাঙালি ও হিন্দিভাষীদের সংস্কৃতি পৃথক পৃথক। আমাদের সংস্কৃতি আর তাদের সংস্কৃতির মধ্যে কিছু ভিন্নতা রয়েছে। আমাদের সংস্কৃতিতে যেমন রাধা কৃষ্ণ, মা কালী , মা দুর্গা, ভোলা মহেশ্বর ইত্যাদি ঠাকুর দেবতাকে গুরুত্ব দিয়ে বিভিন্ন উৎসব পার্বণ পালন করা হয়।অন্যদিকে হিন্দি ভাষাভাষী মানুষদের ক্ষেত্রে গণপতি বাপ্পাকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়। গণেশ পুজোকে মেন পুজো হিসেবে দেখিয়ে বিভিন্ন প্রোমো তৈরি করা হয় যেটা বাংলা ধারাবাহিকের ক্ষেত্রে ভিন্ন সেখানে রাধা কৃষ্ণের ঝুলন, দোল উৎসব বা দুর্গাপুজোর শিবরাত্রি ইত্যাদিকে কেন্দ্র করে নানানরকম প্রোমো তৈরি করা হয়।

এখন বাঙালি সংস্কৃতির মধ্যে হিন্দি সংস্কৃতি ঢুকে গেলে সেটা একটু চোখে লাগে মনে হয় কি যেন একটা অন্যরকম হচ্ছে আমাদের নৃত্য পারদর্শী ভগবান হিসেবে মহাদেব কে দেখানো হয় তিনি নটরাজ আর হিন্দিভাষী মুম্বাইয়ের সংস্কৃতিতে গণপতি কে দেখানো হয়। সম্প্রতি ডান্স ডান্স জুনিয়র সিজন ৩ আসতে চলেছে স্টার জলসায়। ইতিমধ্যেই এই শো নিয়ে বিভিন্ন রকম প্রোমো দেখানো হয়েছে। সম্প্রতি এই শোয়ের একটি কভার পেজ দেওয়া হয়েছে স্টার জলসায়।যেখানে দেখানো হচ্ছে যে আগামী ৬ আগস্ট থেকে শনি রবি সাড়ে ছয়টায় এই শো হবে আর কভার পেজে ফুটে উঠছে গণপতি বাপ্পার সামনে হাঁটু গেড়ে প্রণাম করছে দেব। 

এই ছবি শেয়ার করেই রানা সরকার প্রশ্ন তুললেন,“ আমরা তো জানতাম বাঙালির ঠাকুর মা দুর্গা মা কালী রাধা কৃষ্ণ বা মহাদেব ভোলা মহেশ্বর। গণেশ পুজো করে কবে থেকে বাঙালি কাজ শুরু করতো? বাঙালি কি নিজের পরিচয় পাল্টে ফেললো। এই মুম্বাইয়া সংস্কৃতি ঢুকিয়ে দিচ্ছে কারা?”