বিপাকে কংগ্রেসে, প্রচার কমিটির দায়িত্ব পেয়েই ছাড়লেন গুলাম নবি আজাদ !

জম্মু-কাশ্মীরের কংগ্রেসের কোনও সমীকরণ এই সিদ্ধান্তকে প্রভাবিত করে থাকতে পারে

বিপাকে কংগ্রেসে,  প্রচার কমিটির দায়িত্ব পেয়েই ছাড়লেন গুলাম নবি আজাদ !

আরোহী নিউজডেস্ক: দলের প্রচার কমিটির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পাওয়ার মাত্র কয়েকঘণ্টার মধ্যেই সেই পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদ। যদিও তিনি জানিয়েছেন, শারীরিক কারণেই দলের দেওয়া নতুন দায়িত্ব তিনি নিতে পারছেন না। তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, জম্মু-কাশ্মীরের কংগ্রেসের কোনও সমীকরণ এই সিদ্ধান্তকে প্রভাবিত করে থাকতে পারে। দলের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই নানা বিষয়ে সরব গুলাম নবি আজাদ। এর আগে কংগ্রেস দলে নেতৃত্ব বদলের যে দাবি উঠেছিল তাতেও সামিল হয়েছিলেন গুলাম নবি আজাদ। বছর দুয়েক আগে কংগ্রেসের ২৩ জন প্রবীণ নেতা সভাপতি সোনিয়া গান্ধিকে চিঠি লিখে নিজেদের অসন্তোষের কথা জানিয়েছিলেন। সেই চিঠিতেও সই করেছিলেন কাশ্মীরের এই প্রবীন কংগ্রেস নেতা। 

সেই দিক থেকে তাঁকে প্রচার কমিটির চেয়ারম্যান করায় অনেকেই মনে করেছিলেন তিনি আবারও হয়তো স্বমহিমায় ফিরতে চলেছেন। কিন্তু দ্রুত ইস্তফা দিয়ে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন আজাদ। সেই সঙ্গে নতুন করে জল্পনা তৈরি করে দিলেন কাশ্মীরের এই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী । 

ইডি যেদিন সোনিয়া গান্ধিকে জেরা করে সেদিন পথে নেমেছিল কংগ্রেস । তাতেও সামিল হয়েছিলেন গুলাম নবি আজাদ। সাংবাদিক সম্মেলনেও বক্তব্য রেখেছিলেন তিনি । তবে রাজ্যসভায় নতুন করে যেতে না পারা নিয়ে তাঁর ক্ষোভ ছিল বলে কংগ্রেস সূত্রে খবর । রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা হিসেবে মেয়াদ শেষ করলেও পরে আর সাংসদ হওয়ার সুযোগ পাননি আজাদ । তাছাড়া কংগ্রেস দলের জম্মু কাশ্মীরের সভাপতি নির্বাচন নিয়েও নাকি ক্ষুব্ধ গুলাম নবি আজাদ । সবমিলিয়েই তিনি প্রচার কমিটির চেয়ারম্যানের পদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল । এ প্রসঙ্গে নিজের মত প্রকাশ করেছেন কংগ্রেস নেতা অশ্বিনী হান্ডা । তিনি জানান, নতুন প্রচার কমিটি উপত্যকার মানুষের আশা-আকাঙ্খাকে গুরুত্ব দেয়নি । আর তাই আজাদ ইস্তফা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন । তবে এর ফলে নতুন করে জটিলতা বাড়ল উপত্যকার কংগ্রেস সংগঠনে।