সোনার দোকানে ডাকাতি করেও হল না শেষরক্ষা, ফিল্মি কায়দায় ধরা পড়ল ডাকাতদল!

একটি ডাকাতদল আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ডানকুনিতে একটি অভিজাত সোনার দোকানে ঢুকে পড়ে

সোনার দোকানে ডাকাতি করেও হল না শেষরক্ষা, ফিল্মি কায়দায় ধরা পড়ল ডাকাতদল!

আরোহী নিউজডেস্ক: পুলিশ  এবং স্থানীয় বাসিন্দাদের তৎপরতায় উদ্ধার হল কোটি কোটি টাকার গয়না। সোনা-রুপো মিলিয়ে উদ্ধার প্রায় আট কোটি টাকার গয়না। সঙ্গে উদ্ধার আগ্নয়াস্ত্রও। বৃহস্পতিবার রাতে আচমকাই একটি ডাকাতদল আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ডানকুনিতে একটি অভিজাত সোনার দোকানে ঢুকে পড়ে। ওই সোনার দোকানে ক্রেতা সেজে আগে থেকেই বসে ছিল দুজন। এরপরই নিরাপত্তারক্ষীরদের মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে তাদের দোকানের ভিতরে নিয়ে যায় ডাকাতদলটি।

এরপর চলে অবাধে লুটপাট। তারপর সোনা-রুপোর গয়না-সহ নগদ টাকা নিয়ে বাইকে করে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। কিন্তু তাতেও হল না শেষরক্ষা। দ্রুত ডানকুনি থানার পুলিশ ব্যবস্থা নেয়। ওই সোনার দোকানের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আশেপাশের থানায় খবর পাঠানো হয়। বিভিন্ন জায়গায় শুরু হয় নাকা চেকিং। পুলিশের তাড়া খেয়ে ওই ডাকাতদল বাইক ফেলে আরামবাগের একটি বাসে উঠে পড়ে। এরপর নাটকীয় কায়দায় ধরা পড়ে যায় ওই ডাকাতদলের কয়েকজন। 

কোতুলপুর থানার পুলিশ, গোঘাট থানার পুলিশ এবং বাঁকুড়ার  খাটুল এলাকার মানুষের যৌথ চেষ্টায় ওই বিপুল পরিমাণ সোনা ও রুপোর গয়না উদ্ধার হয়েছে। সঙ্গে উদ্ধার হয়েছে চারটি পিস্তল। এর সঙ্গেই পুলিশের হাতে আটক চার দুষ্কৃতী। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই চারজন দুষ্কৃতীকে খাটুল বাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে কমপক্ষে আট কোটি টাকার সোনা-রুপোর গয়না। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, ওই চার দুষ্কৃতী কোনও সোনার দোকান লুট করে পালাচ্ছিল। সেই সময়েই কোতুলপুরের স্থনীয় বাসিন্দা ও পুলিশের হাতে তারা ধরা পড়ে। 

স্থানীয় সূত্রে খবর, এদিন সাড়ে ছটা নাগাদ একটি বাসে তিনটি সোনা ভর্তি ব্যাগসহ চার দুষ্কৃতী যখন বাস থেকে নেমে পালাচ্ছিল ঠিক তখনই এক ব্যক্তি চোর চোর বলে চিৎকার করে ওঠে. এরপরই খাটুল এলাকার মানুষ এবং রেনবো ক্লাবের সদস্যদের চেষ্টায় এলাকার মানুষের হাতে ধরা পড়ে তারা। জানা যায়, কোন একটি সোনার দোকান থেকে গয়না চুরি করে পালতে যাচ্ছিল তারা।  ওদের পিছু পিছু  এক ব্যক্তি ধাওয়া করে এবং খাটুলবাজারের কাছে  ধরা পড়ে ওই চার দুষ্কৃতি। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় প্রচুর পরিমাণ সোনা,রুপা, চারটি পিস্তল। উদ্ধার হওয়া সোনা ও রুপার আনুমানিক বাজার মূল্য ৮ কোটিরও বেশি বলে পুলিশ সূত্রে খবর।