যোগীর স্তুতি করলে তবেই জোটে, ভিআইপি-কে সাফ জানিয়ে দিল উত্তর প্রদেশের বিজেপি

যোগীর স্তুতি করলে তবেই জোটে, ভিআইপি-কে সাফ জানিয়ে দিল উত্তর প্রদেশের বিজেপি

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  জোর কাজিয়া এবার বিহারের শাসক জোট শিবিরে। বিজেপি রাজ্য সহ সভাপতি তথা সাংসদ অজয় নিষাদ বিকাশশীল ইনসাফ পার্টি-র (ভিআইপি) প্রধান তথা বিহার সরকারের মন্ত্রী মুকেশ সাহানিকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন। উত্তরপ্রদেশের বিহারে বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির ভূমিকা সম্পর্কে তিনি বলেছেন, বিজেপি ছাড়া মুকেশ সাহানির পার্টির কোনো অস্তিত্ব নেই। কারণ,কোনও জনভিত্তিই নেই তাদের। মাটিতে মিশে যাবে ভিআইপি। আবার তাঁর হুঁশিয়ারি, জোটে থাকতে হলে বলতে হবে যোগী, যোগী। নাহলে দেখিয়ে দেওয়া হবে বাইরের রাস্তা। 

অন্যদিকে দেখা যায়,উত্তরপ্রদেশের আসন্ন নির্বাচনে বিহারে এনডিএ জোটের শরিক বিকাশশীল ইনসাফ পার্টির প্রধান তথা বিহার সরকারের মন্ত্রী উত্তরপ্রদেশে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে প্রচার ও বিজেপির বিরুদ্ধে দলের প্রার্থী দাঁড় করানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এই বিষয়টি নিয়েই এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ক্ষুব্ধ অজয় নিষাদ। 

সাংসদ অজয় নিষাদ বলেছেন,ভিআইপি উত্তরপ্রদেশে যদি বিজেপি বিরোধী কাজ করে, তাহলে আমরাও বিহারে খালি হওয়া বোচাহা বিধানসভা আসনের দাবি করব। উত্তরপ্রদেশে যারা বিরোধিতা করছে, এখানে তাদের সঙ্গে খোলাখুলি বিরোধিতা করব। 

সম্প্রতি এই আসনটি শূন্য হয়ে পড়েছে ভিআইপি বিধায়কের মৃত্যুতে। আর তা নিয়ে উত্তরপ্রদেশের নির্বাচনকে ঢাল করে এই আসনে নিজেদের দাবি সুনিশ্চিত করার চেষ্টা শুরু করেছে।এর আগে এই আসন ছিল বিজেপির ভাগে। 

অন্যদিকে, বিরোধী দল কংগ্রেসকেও অজয় নিষাদ একহাতে করে নিয়েছেন। তিনি বলেছেন,ক্রমশই বাড়ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্র সরকারের জনপ্রিয়তা। ফলে কংগ্রেস হতাশ হয়ে নিকৃষ্ট মানের রাজনীতি করতে শুরু করেছে। কিছুদিন আগে পঞ্জাবের ফিরোজপুরে সভা না করে ফিরে আসতে হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীকে। এই প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তিনি বলেছেন, ২০১৪ থেকে নাজেহাল হয়ে উঠছে কংগ্রেস। কারণ, তারা আর ক্ষমতার স্বাদ পাচ্ছে না। পঞ্জাবের ঘটনা এই হতাশারই প্রতিফলন। খুব শীঘ্রই এর প্রকৃত তথ্য সামনে আসবে। তাঁর অভিযোগ, পঞ্জাবে প্রধানমন্ত্রীকে খুনের ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল।