বুথেই টিকাকরণ নিয়ে ভাবনা চিন্তা কমিশনের

বুথেই টিকাকরণ নিয়ে ভাবনা চিন্তা কমিশনের

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  করোনা অবহের মধ্যেই হচ্ছে নির্বাচন। তাই স্বাস্থ্য দপ্তরের সঙ্গে নির্বাচন কমিশন আলোচনা করেছে কলকাতা পুরভোটে ভোটারদের টিকাকরণ হয়নি তাদের টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে বুথ গুলিতে। তবে এই আর বিষয়টি এখনও ভাবনা-চিন্তার স্তরে রয়েছে। স্বাস্থ্য দফতরের তরফের সবুজ সংকেত পেলেই বিষয়টিকে প্রয়োগ করা হবে।

ইতিমধ্যেই কলকাতার ৮৪ শতাংশ মানুষের টিকাকরণ সম্পন্ন হয়েছে। বাকি যাদের টিকাকরণ বাকি রয়েছে তাঁদের টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করতে পারে নির্বাচন কমিশন। এদিকে করোনা আবহে যাবতীয় বিধি নিষেধ মেনেই প্রচার করতে হবে বলেই জানায় কমিশন।

ভোট গ্রহণের ক্ষেত্রে কোভিড বিধি মানার ক্ষেত্রে জোর দেওয়া হচ্ছে। মূলত ছোট প্রচারেই জোর দেওয়া হচ্ছে। বড় ধরনের প্রচার বা সমাবেশ এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। তবে যদি বড় প্রচার করতে হয় সে ক্ষেত্রে বড় জায়গায় সেই প্রচার করতে হবে। অবশ্যই সেই জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের অনুমতি নিতে হবে। বেঁধে দেওয়া হয়েছে প্রচার এর সময়সীমা। সন্ধ্যে সাতটা থেকে সকাল দশটা পর্যন্ত কোনো রকম প্রচার করা যাবে না। একই সঙ্গে ভোটের নির্ধারিত দিনের 72 ঘন্টা আগে বন্ধ করে দিতে হবে সব রকম প্রচার।

যেহেতু ১ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র পেশের শেষ দিন। তাই মনে করা হচ্ছে শুক্রবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করতে পারে তৃণমূল। বৃহস্পতিবার দিল্লি থেকে ফিরছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল সুপ্রিমো প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত শুক্রবার তা প্রকাশ করা হতে পারে। মনোনয়নপত্র পরীক্ষা শুরু ২ ডিসেম্বর।মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ৪ ডিসেম্বর। এদিকে, ১৯ ডিসেম্বর সকাল ৭ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত হবে ভোটগ্রহণ। যদি প্রয়োজন হয় তাহলে পুনর্নির্বাচন হবে ২০ ডিসেম্বর।ইভিএমেই হবে ভোট গ্রহণ।