মানুষের শরীরে বসল শূকরের হৃৎপিণ্ড

মানুষের শরীরে বসল শূকরের হৃৎপিণ্ড

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  চিকিত্‍সা বিজ্ঞানের ইতিহাসে প্রথমবার। মানুষের শরীরে শুয়োরের হৃত্‍পিণ্ড প্রতিস্থাপন করলেন চিকিত্‍সকরা। এই অসাধ্যসাধন হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। আমেরিকার মেরিল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিক্যাল সেন্টারের চিকিত্‍সকরা ৫৭ বছরের ডেভিড বেনেটের শরীরে সফলভাবে জিন পরিবর্তিত শুয়োরের হৃত্‍পিণ্ড প্রতিস্থাপন করেছেন। 

হৃদরোগে ভুগছিলেন ৫৭ বছরের ডেভিড বেনেট। গত শুক্রবার ওই ব্যক্তির দেহে শূকরের হৃত্‍পিণ্ড প্রতিস্থাপন করা হয়েছে, যা জিনগত দিক থেকে পরিবর্তন করা হয়েছিল।আপাতত ওই রোগী সুস্থ হয়ে উঠছেন ।

চিকিত্‍সক বার্টলি গ্রিফিথ বলছেন, 'এটা একটা নবদিগন্ত উন্মোচন করা অস্ত্রোপচার।' তিনি আরও বলেন,  আমরা আশাবাদী, বিশ্বে প্রথমবার হওয়া এই অস্ত্রোপচার ভবিষ্যতে রোগীদের নতুন বিকল্প এনে দেবে।'শুয়োরের হৃত্‍পিণ্ড বসানোর পর তিনি ক্রমেই সুস্থ হয়ে উঠছেন। নতুন অঙ্গ কেমন কাজ করে সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রেখেছেন চিকিত্‍সকরা।