উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনে কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকায় উন্নাওয়ের নির্যাতিতার মা 

উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনে কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকায় উন্নাওয়ের নির্যাতিতার মা 

আরোহী নিউজ ডেস্ক :  বড় চমক উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনের কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকাতে । উন্নাওয়ে ধর্ষিতার মা-কে উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনে প্রার্থী করল কংগ্রেস। নির্বাচনে অংশ নেবেন  আশা সিং, বৃহস্পতিবার এই ঘোষণা করলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি । উত্তরপ্রদেশের উন্নাও জেলায় ২০১৭ সালে এক ভয়ঙ্কর ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। সেই ঘটনার পর জাতীয় রাজনীতি তথ্য গোটা দেশ কার্যত তোলপাড় হয়ে যায়। ওই ঘটনায় এক বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে সরাসরি যোগসাজশ থাকার অভিযোগ ওঠে। সেই সময়ে বহুবার  উন্নাওয়ের ধর্ষিতার বাড়ি ছুটে গিয়েছিলেন  প্রিয়াঙ্কা গান্ধি। 

আর তাই এবার বিজেপি-র বিরুদ্ধে সরাসরি লড়াইয়ে সেই উন্নাওকেই হাতিয়ার করতে  চাইলেন প্রিয়াঙ্কা। বৃহস্পতিবার প্রিয়াঙ্কা উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনের জন্য মোট ১২৫ জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন, যাঁদের মধ্যে ৪০ শতাংশই  মহিলা। 

আগামী দশই ফেব্রুয়ারি উত্তরপ্রদেশে প্রথম দফার ভোট। বৃহস্পতিবার কংগ্রেসের তরফ ভার্চুয়াল মাধ্যমে  উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনে প্রথম দফার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি। যিনি কংগ্রেসের তরফ থেকে উত্তরপ্রদেশের দায়িত্বপ্রাপ্ত। সেই তালিকায় ৫০ জন মহিলা রয়েছেন বলে তিনি ঘোষণা করেন। তার পরেই তিনি বলেন, "আমাদের প্রার্থী তালিকা রাজনীতির অঙ্গনে এক নতুন বার্তা বহন করবে। আপনি যদি কোনওরকম অত্যাচার, হেনস্থার শিকার হন, তাহলে আপনার পাশে থাকবে কংগ্রেস।" এর আগেই নারী কেন্দ্রিক একটি প্রচার-মন্ত্র ঘোষণা করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি। তাঁর 'লেড়কি হুঁ, লড় সকতি হুঁ' আওয়াজের প্রভাবই যেন ভোটের তালিকাকেও প্রভাবিত করেছে ।  

২০১৭ সালে ১৯ বছরের এক যুবতীকে নিজের বাড়িতে নৃশংসভাবে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সিং সেঙ্গরের বিরুদ্ধে। মামলা চলাকালীন কোর্টে যাওয়ার পথে ওই যুবতী ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা একটি গাড়ি দুর্ঘটনার মুখে পড়েন। সেই দুর্ঘটনায় তাঁর পরিবারের দুই সদস্যের মৃত্যু হয়। সেসময় নির্যাতিতা যুবতীও গুরুতর আহত হন।  এরপর ধর্ষণ মামলার শুনানির সময় রায় বারেলি আদালতে যাওয়ার পথে ওই যুবতীকে অভিযুক্তরা জ্যান্ত পুড়িয়ে মেরে ফেলে । এরপর চাপে পড়ে যোগী সরকারও। শেষে গ্রেফতার হয় অভিযুক্তরা ।