ত্রিপুরার আঁচ কলকাতায়, বিজেপি সদর দফতরের সামনে বিক্ষোভ তৃণমূলের

 ত্রিপুরার আঁচ কলকাতায়, বিজেপি সদর দফতরের সামনে বিক্ষোভ তৃণমূলের

আরোহী নিউজ ডেস্ক : ত্রিপুরায় সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার, কর্মী সমর্থকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে বিজেপির রাজ্য সদর দফতরের সামনে তৃণমূলের বিক্ষোভ ঘিরে ধুন্ধুমার। বিজেপির অফিসের দেওয়ালেই টাঙানো হল ফেস্টুন। শেষে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আর এ নিয়েই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা।  ত্রিপুরা কাণ্ডের প্রতিবাদে মঙ্গলবার কলকাতায় মুরলীধর সেন লেনে বিজেপির সদর কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। ওঠে 'খেলা হবে' স্লোগানও। এলাকায় তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। শেষমেশ বিশাল পুলিসবাহিনী পরিস্থিতি সামাল দেয়। বিজেপি কার্যালয়ের সামনে গার্ড রেল বসিয়ে দেওয়া হয়। রাস্তায় বসেই প্রতিবাদ-বিক্ষোভে সোচ্চার হতে থাকেন তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। 

তৃণমূল নেত্রীর গ্রেফতারির প্রতিবাদে শুরু হয় বিক্ষোভ। বাদ যায়নি কলকাতাও । ত্রিপুরার ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার বিজেপির মুরলীধর সেন লেনের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে তৃণমূল সমর্থকরা । হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে 'অপদার্থ বিজেপি সরকার', 'ধিক্কার ত্রিপুরা পুলিশ' আওয়াজ তুলে বিক্ষোভে সামিল তৃণমূল। এদিন বিজেপির রাজ্য দফতরের সামনে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা বিক্ষোভ দেখায়। মুরলীধর সেন লেনে বিক্ষোভ তৃণমূলের। ত্রিপুরার ঘটনার প্রতিবাদে তৃণমূলের বিক্ষোভ। তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকদের তরফে গঙ্গাজল দিয়ে সাফ করা হয় এবং দাবি করেন তারা যে এভাবেই  বিজেপিকে সাফাই করবে তৃণমূল। 

আগরতলায় সায়নী ঘোষের গ্রেফতারির প্রতিবাদে সরব তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা। রাস্তায় বসে চলে সেখানে প্রতিবাদ। বেশ কিছুক্ষণ ধরে সেখানে চলে তাঁদের অবস্থান বিক্ষোভ। সেখানে বিক্ষোভে ছিল কড়া পুলুশি নিরাপত্তা। বিজেপির কর্মী সমর্থকরা সেখানে যাওয়ার আগেই তৃণমূলের কর্মীদের সেখানথেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।বিজেপি পার্টি অফিসের সামনের রাস্তায় বসে ত্রিপুরা পুলিশকে ধিক্কার জানিয়ে দফায় দফায় স্লোগান তুলে প্রতিবাদ জানান তাঁরা। যদিও পরে পুলিশ তাঁদের সরিয়ে দিয়ে রাস্তায় গার্ডরেল বসিয়ে দেয়।