শহরের ডেঙ্গুতে মৃত্যু নাবালকের, নড়েচড়ে বসল নবান্ন

শুক্রবার দুপুরেই নবান্নে জরুরি ভিত্তিতে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক ডকলেন মুখ্যসচিব

শহরের ডেঙ্গুতে মৃত্যু নাবালকের, নড়েচড়ে বসল নবান্ন

আরোহী নিউজডেস্ক: বৃহস্পতিবার শহরের বুকে ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে এক নাবালক। কলকাতা পুরসভার ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ সাংবাদিক সম্মেলনে এই ঘটনা স্বীকার করে নেন। এরপরই নড়েচড়ে বসল রাজ্য সরকার। শুক্রবার দুপুরেই নবান্নে জরুরি ভিত্তিতে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক ডকলেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। গুরুত্বপূর্ণ এই বৈঠকে রাজ্যের সমস্ত জেলার জেলাশাসক, সব জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক, বিধান নগর, কলকাতার মত গুরুত্বপূর্ণ পুর নিগমের প্রতিনিধি, মৎস্য সচিব, নগরোন্নয়ন সচিবদের উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।পাশাপাশি সমস্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালগুলির সুপার ও প্রিন্সিপালদেরও উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।

 প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবারই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এলাকা কালীঘাটে ডেঙ্গিতে প্রাণ হারায় ১২ বছরের এক পড়ুয়া। পাশাপাশি প্রশাসন সূত্রে খবর, ওই এলাকায় আক্রান্ত আরও বেশ কয়েকজন। মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির এলাকায় ডেঙ্গিতে মৃত্যু। যার জেরেই এবার নড়েচড়ে বসতে চলেছে নবান্ন, এমনটাই মনে করা হচ্ছে। এদিনের বৈঠক থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ দেওয়া হতে পারে জেলাশাসক-সহ জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিকদের। রাজ্যের হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজ গুলিতে ডেঙ্গি চিকিৎসার বর্তমান অবস্থার পর্যালোচনা এদিনের বৈঠকে করবেন মুখ্য সচিব।

 এর আগেও কয়েকবার মুখ্যসচিব ভার্চুয়ালি জেলাগুলির সঙ্গে ডেঙ্গি নিয়ে বৈঠক করেছিলেন। কয়েক দফা নির্দেশও দিয়েছিলেন ওই বৈঠকে। কোন বাড়িতে জল জমে রয়েছে তা চিহ্নিতকরণের কাজও করার নির্দেশ দেওয়া হয়। প্রয়োজনে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও বলা হয় সম্প্রতি মুখ্য সচিবের তরফে করা এক বৈঠকে। যদিও শেষ কয়েক মাসে জলপাইগুড়ি সহ বেশ কয়েকটি জায়গায় ডেঙ্গি প্রকপ বাড়ছিল। তবে বৃহস্পতিবার কলকাতা পুর এলাকাতে ছাত্রের মৃত্যু নাড়িয়ে দিয়েছে।