নিম্নচাপের জেরে অবশেষে স্বস্তি দক্ষিণে, জেনে নিন কোন কোন জেলায়

রবিবারই বঙ্গোসাগরে নিম্নচাপ তৈরি হবে বলে জানিয়ে দিল আলিপুর হাওয়া অফিস

নিম্নচাপের জেরে অবশেষে স্বস্তি দক্ষিণে, জেনে নিন কোন কোন জেলায়

আরোহী নিউজডেস্ক: রবিবারই বঙ্গোসাগরে নিম্নচাপ তৈরি হবে বলে জানিয়ে দিল আলিপুর হাওয়া অফিস। বাংলা উপকূলেও পড়বে প্রভাব। সোমবার থেকে মৎস্যজীবীদের জন্য নিষেধাজ্ঞা। মঙ্গল ও বুধবার ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গের উপকূলে। অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূল এবং পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরে রয়েছে একটি ঘুনাবর্ত। রবিবার এই ঘূর্ণাবর্ত নিম্নচাপে পরিণত হবে। নিম্নচাপটি সোমবারের পর শক্তি বাড়াতে পারে। ওড়িশাj সঙ্গে এই বাংলাতেও নিম্নচাপের প্রভাব পড়বে বলে অনুমান আবহাওয়াবিদদের।

এই নিম্নচাপ বাংলাতে প্রভাব ফেললেও দক্ষিণবঙ্গ জুড়েই ভারী বৃষ্টি হবে এমনটা নয়। মূলত উপকূল উপকূল সংলগ্ন জেলাগুলিতেই ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। এখনও পর্যন্ত আবহাওয়া দফতরের যা অনুমান করছেন তাতে সব থেকে বেশি বৃষ্টি হবে পূর্ব মেদিনীপুর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা এই দুই জেলায়। তবে বুধবার দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। ওই দিন ঝাড়গ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি এবং কলকাতার দু'একটি জায়গায় ভারী বৃষ্টিপাতের (৭০ থেকে ১১০ মিলিমিটার) পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

নিম্নচাপের আগেই দক্ষিণবঙ্গের বাতাসে জলীয় ভাগ বেশি থাকায় এবং তাপমাত্রা কিছুটা বাড়ায় আর্দ্রতা অস্বস্তি ক্রমশ বাড়বে। রবিবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়বে এবং আদ্রতা জনিত অস্বস্তি ক্রমশ চরমে উঠবে। শনিবার কলকাতায় মূলত মেঘলা আকাশ। বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এদিন শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৮ ডিগ্রি সেলসিয়ায়। বাতাসে জলীয়বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ ৯৪ শতাংশ। গত ২৪ ঘন্টায় কোনও বৃষ্টি হয়নি।